চাঁদমনির গানের ভিডিও মুক্তি পেতেই মুহূর্তেই ভাইরাল, শুভেচ্ছার ঝড় নেটদুনিয়ায়

Image Source : Google

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটা প্ল্যাটফর্ম যেখানে রাতারাতি কেও সুপার স্টার হয়ে যেতে পারে। উদাহরণ স্বরূপ নাম আসে রানু মন্ডল। যার একটা গান সোশ্যাল মিডিয়া পৌঁছে দিয়েছিল রানাঘাটের প্ল্যাটফর্ম থেকে মুম্বাই এর মিউজিক স্টুডিওতে। সম্প্রতি আরও এক কন্যার সুরেলা কণ্ঠে মুগ্ধ হয় গোটা নেটদুনিয়া। হুগলি জেলার ইটাচুনা গ্রামের বাসিন্দা চাঁদমনি হেমব্রম। তার একটি খালি গলায় গান রীতিমতো ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। খুব অভাবী পরিবারের মেতে চাঁদমনি। হটাৎ করেই তার এক শিক্ষক তার গান আপলোড করে দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ব্যাস তারপরই স্টার চাঁদমনি।

শুধু সোশ্যাল মিডিয়া নয় ইতিমধ্যেই বড়ো মিউজিক ডিরেক্টর এর অধীনে তার গান রেকর্ড করাও হয়ে গেছে এমনকি ২৪শে জুলাই মুক্তিও পেয়েছে তার প্রথম গান। লকডাউনের জেরে আপাতত অনলাইন প্ল্যাটফর্মেই মুক্তি পাচ্ছে সমস্ত গান এবং সিনেমা। তাই চাঁদমনির প্রথম গান “ভালোবেসেছি তাই হারিয়েছি” মুক্তি পেয়েছে ইউটিউবে। আর মুক্তি পেতেই মুহূর্তেই ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। অধীর আগ্রহে সকলেই অপেক্ষা করছিল কবে তার রেকর্ড করা প্রথম গান আসবে। তাই সেই গান আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠলো ঝড়। তার গানের সুনামে শুভেচ্ছার বন্যা।

জনপ্রিয় গায়িকা নেহা কাক্কারের গান গেয়েই ভাইরাল হয়েছিল চাঁদমনি হেমব্রম। গানটি ছিল “মিলে হো তুম হামকো”। তারপর একে একে দর্শকদের আবদারে রবীন্দ্রসঙ্গীত এবং অন্যান্য গানও পোস্ট করেন তিনি। সাঁওতাল সম্প্রদায়ের কন্যা হলেও তার হিন্দি এবং বাংলা উচ্চারণ স্পষ্ট এবং নিখুঁত। আর কণ্ঠেতো সরস্বতী বিরাজমান। আপাতত শুরু তার জয়যাত্রা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.