ছত্রধরকে ২ দিনের এনআইএ হেফাজতের নির্দেশ ব্যাঙ্কশাল কোর্টের

ছত্রধরকে ২ দিনের এনআইএ হেফাজতের নির্দেশ ব্যাঙ্কশাল কোর্টের
ছত্রধরকে ২ দিনের এনআইএ হেফাজতের নির্দেশ ব্যাঙ্কশাল কোর্টের / ছবি সৌজন্যে- Facebook-Post-By-@CHATRADHARMAHATA123

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ধৃত ছত্রধর মাহাতোকে দুদিনের এনআইএ হেফাজতের নির্দেশ দিল ব্যাঙ্কশাল কোর্ট। জানা গিয়েছে, চলতি মাসের ৩০ তারিখ তাঁকে ফের আদালতে হাজির করা হবে।

এদিন এনআইএ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগের প্রসঙ্গে আদালত জানিয়েছে যে, পরবর্তী শুনানির দিন যদি, তাঁর শরীরে আঘাতের চিহ্ন মেলে, তাহলে তার জন্য তদন্তকারী আধিকারিকরা দায়ী থাকবেন।

উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট মিটতেই ছত্রধর মাহাতোকে গ্রেফতার করে এনআইএ। আগেই মনে করা হচ্ছিল যে, তদন্তে সহযোগিতা না করলে, তাঁকে যেকোনো সময় তাঁকে গ্রেফতার করা হতে পারে ঝাড়গ্রামে জনসাধারণ কমিটির প্রাক্তন নেতা তথা বর্তমানে তৃণমূলের রাজ্য কমিটির সম্পাদক ছত্রধর মাহাতোকে।

এবার বাস্তবেও সেটাই হল। এনআইএ সূত্রে খবর, ১৬, ১৮ এবং ২২ তারিখ ছত্রধর মাহাতোকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছিল এই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার পক্ষ থেকে। ২৬ তারিখ তাঁকে ফের ডেকে পাঠানো হয়। এরপরই রবিবার তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করে হচ্ছে যে, আচমকাই ৪০ জনের একটি দল হাজির হয় লালগড়ে, ছত্রধরের বাড়িতে। সেখান থেকেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ছত্রধরের স্ত্রীর অভিযোগ, গ্রেফতারের কোনও উপযুক্ত নথি দেখাতে পারেননি তদন্তকারীরা। তিনি আরও অভিযোগ করেছেন যে, গ্রেফতারের পরই ছত্রধরের উপর শারীরিক নির্যাতন করা হয়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ২৮ মে পশ্চিম মেদিনীপুরে জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছিল। এই দুর্ঘটনায় জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগিতে একটি চলন্ত মালগাড়ির ধাক্কা লাগায় বহু যাত্রীর প্রাণহানি ঘটে। ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মাওবাদী) এই অঞ্চলে চারদিনের বনধ ঘোষণা করার, ৯০ মিনিট পরেই এই দুর্ঘটনা ঘটে। রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল যে, মাওবাদীরা রেলওয়ে ট্র্যাক থেকে ৪৬ সেন্টিমিটার অংশ সরিয়ে নেয়। যে কারণেই এই দুর্ঘটনা। এই কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত হিসেবে জড়িয়ে যায় ছত্রধর মাহাতোর নাম। এছাড়াও সিপিএম নেতা প্রবীর মাহাতোকে খুনের ঘটনাতেও অন্যতম অভিযুক্ত এই ছত্রধর মাহাতো।

গ্রেফতারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ছত্রধর মাহাতোকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হয়। আগামী ২ দিন, অর্থাৎ ৩০ মার্চ পর্যন্ত তাঁকে এনআইএ হেফাজতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.