ব্রাহ্মণদের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য! গ্রেফতার হলেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর বাবা

ব্রাহ্মণদের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য! গ্রেফতার হলেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর বাবা
ব্রাহ্মণদের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য! গ্রেফতার হলেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর বাবা / ছবি সৌজন্যে- twitter @nandkumarbaghe3

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ব্রাহ্মণদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় বিপাকে পড়তে হল বছর ৮৬-র প্রবীণ ব্যক্তিকে। যেমন তেমন কেউ নন, তিনি খোদ ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেলের বাবা নন্দ কুমার বাঘেল। ব্রাহ্মণদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার কারণে শেষ পর্যন্ত তাঁকে জেলেও যেতে হল।

জানা গিয়েছে, আগামী ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নন্দ কুমার বাঘেলকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। ফলে ১৫ দিন জেলে কাটাতে হবে তাঁকে। মঙ্গলবার তাঁকে গ্রেফতার করার পর রায়পুর আদালতে তোলা হয়। আইন সকলের ক্ষেত্রেই সমান ভাবে কাজ করে। ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেলের বাবা গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় এমনটাই জানিয়েছে কংগ্রেস।

সম্প্রতি একটি ভিডিওতে ভুপেশ বাঘেলের বাবা নন্দ কুমারকে বলতে শোনা যায় যে, ‘ব্রাহ্মণদের বয়কট করার ডাক দিন। ওঁদের গ্রামে ঢুকতে দেবেন না। ওঁরা নদীর তীরে থাকুন। ওঁরা বিদেশি। ওঁরা আমাদের অচ্ছ্যুত বলে মনে করে। আমি এই নিয়ে সব সম্প্রদায়ের সঙ্গে কথা বলব।’

নন্দ কুমারের এই মন্তব্যের পরই রীতিমতো ক্ষোভ জমতে শুরু করে রাজ্যের ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মধ্যে। তড়িঘড়ি নিজের বাবার বিরুদ্ধেই পদক্ষেপ করেন কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল। উল্লেখ্য, নিজের বাবার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। জানা গিয়েছে, ছত্তিশগড় পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩-এ এবং ৫০৫-এ ধারায় মামলা দায়ের করে। মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল বলেন যে, ‘আইনের চোখে সবাই সমান। সে ৮৬ বছর বয়সি মুখ্যমন্ত্রীর বাবা হলেও। একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে রাজ্যের সব সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতি বজায় রাখা আমার কর্তব্য। যদি কেউ কোনও ভুল মন্তব্য করে, তাহলে আমি দুঃখিত তাঁকে শাস্তি পেতেই হবে।’

পরে টুইটে তিনি বলেন, ‘ছেলে হিসাবে আমি ওঁকে অনেক শ্রদ্ধা করি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শান্তি বিঘ্নিত করে এমন কোনও ভুল আমি ক্ষমা করতে পারবে না।’ উল্লেখ্য কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বাবার এই ধরনের শাস্তি হওয়ার নজির সত্যিই বিরল।

তবে, এর আগেও ওবিসি মানুষদের অধিকার নিয়ে সরব নিতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর বাবাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তাঁকে এই নিয়ে একাধিক পোস্ট করতে দেখা গিয়েছে। সেক্ষেত্রে অন্য জাতের মানুষদের উদ্দেশে আপত্তিকর মন্তব্য কখনই গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানিয়েছে সর্ব ব্রহ্ম সমাজ কর্তৃপক্ষ।