বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

'বচপন কা প্যায়ার' গাওয়া ভাইরাল এই খুদেয় এখন মুগ্ধ গোটা দেশ! প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছত্তিসগড়ের মুখ্যমন্ত্রীও

১১:৪৩ এএম, জুলাই ২৮, ২০২১

'বচপন কা প্যায়ার' গাওয়া ভাইরাল এই খুদেয় এখন মুগ্ধ গোটা দেশ! প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছত্তিসগড়ের মুখ্যমন্ত্রীও

'বচপন কা প্যায়ার মেরা ভুল নেহি যানা রে', সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এখন রীতিমতো ভাইরাল এই একটিই গান। নেটিজেনরা তো বটেই, তাবড়-তাবড় বলিউড সেলিব্রিটির পছন্দের তালিকায় এখন জায়গা করে নিয়েছে এই গান। গানটির সঙ্গে নেচে বা রিল বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া মাতিয়ে চলেছেন সাধারণ মানুষ থেকে সেলেব্রেটি। সোশ্যাল মিডিয়া খুললেই এখন সব জায়গায় এই গানেরই চর্চা৷ আর গানটির নেপথ্যে রয়েছে যে খুদে সেতো এখন রীতিমতো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সেই খুদেয় মুগ্ধ এখন গোটা দেশ।

ছত্তিসগড়ের সুকমার বাসিন্দা সেই খুদের নাম, সহদেব ডিরডো। বয়স মাত্র ১০। মাত্র ছয় বছর বয়সে মাকে হারায় সহদেব। বাবা পেশায় একজন কৃষক। বর্তমানে পরিবারে বাবা ছাড়া রয়েছেন সহদেবের চার ভাই এবং দুই বোন। সংসারে অভাব নিত্যদিনের সঙ্গী। তবু এর মধ্যেই সহদেব স্বপ্ন দেখে ভবিষ্যতের বলিউড গায়ক হওয়ার।

সম্প্রতি গানটি গেয়ে সহদেব শিরোনামে এসেছে তা একটি আঞ্চলিক ছবিতে ব্যবহৃত গান। বছর দু'য়েক আগে স্কুলের বার্ষিক অনুষ্ঠানের জন্য ছাত্র-ছাত্রী নির্বাচন উপলক্ষে শিক্ষক সন্তোষের সামনে প্রথম এই গান গায় সহদেব। শিক্ষক সন্তোষই এরপর এই গান সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। তারপরই ভাইরাল হয়ে ওঠে ছোট্ট সহদেব।

এখানেই শেষ নয়! সহদেবের গান শুনে মুগ্ধ ছত্তিসগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাগেলও৷ সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানেও মুখ্যমন্ত্রী সহদেবকে ডেকেছিলেন। সেখানেও এই গান গায় খুদেটি। সেই ভিডিও স্বয়ং শেয়ার করেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রত্যেকে বাহবাতেও ভরিয়ে দিয়েছিল সহদেবকে। প্রশংসায় পঞ্চমুখ মুখ্যমন্ত্রী নিজেও।

https://twitter.com/bhupeshbaghel/status/1420019343182675972?s=20

ইতিমধ্যেই মূল ভিডিওটিতে সাড়ে চার লক্ষ লাইক পড়ে গিয়েছে। ৯ লক্ষের বেশি মানুষ দেখে ফেলেছেন ভিডিওটি। এই গানের উপরে ১২ হাজারের বেশি রিল ভিডিও-ও তৈরি হয়েছে। সেই তালিকা থেকে বাদ যাননি জনপ্রিয় বলিউড র‍্যাপার বাদশাও৷ ভিডিও দেখে সহদেবকে বলিউডে গান গাওয়ার সুযোগও দিতে চেয়েছেন বাদশা। যদিও এখনই তার বলিউড যাওয়া হচ্ছে কিনা তা জানা নেই সহদেবের।