ঘুষ দিতে অস্বীকার, ১৪ বছরের কিশোরের অস্থায়ী ডিমের ঠেলা ভেঙে ফেলল স্থানীয় প্রশাসনের কর্মীরা

ঘুষ দিতে অস্বীকার, ১৪ বছরের কিশোরের অস্থায়ী ডিমের ঠেলা ভেঙে ফেলল স্থানীয় প্রশাসনের কর্মীরা
ঘুষ দিতে অস্বীকার, ১৪ বছরের কিশোরের অস্থায়ী ডিমের ঠেলা ভেঙে ফেলল স্থানীয় প্রশাসনের কর্মীরা

দৃশ্য ১
রাস্তার ধারে অস্থায়ী ঠেলা নিয়ে বসেছিল ১৪ বছরের ছেলেটি। সেখানে ডিম বিক্রি করে যে যৎসামান্য উপার্জন হতো তা দিয়েই চেষ্টা করেছিল পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর।

দৃশ্য ২
কিন্তু ঠেলা দেওয়ার দিক নির্বাচনে দেখা যায় সরকার প্রদত্ত “লেফট- রাইট” নিয়ম মানেনি সে।

দৃশ্য ৩
সুযোগ বুঝে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মীরা হানা দেয় তার ঠেলায়। দিতে হবে ১০০ টাকা, না হলে সরিয়ে নাও ঠেলা। ঘুষ পেতে এভাবেই ব্ল্যাকমেল করেছিল তারা। কিন্তু তা সত্ত্বেও রাজী হয়নি ১৪ বছরের ছেলেটি। এর পরেই ডিম সমেত তার ঠেলা উল্টে ফেলা হয়। মাঝ রাস্তায় ভেঙে ফেলা হয় সমস্ত ডিমগুলিও।

এই ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে । একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সাদা জামা পরা বছর ১৪ ছেলেটির ঠেলার সমস্ত ডিম নষ্ট করে দেয় প্রশাসনের কর্মীরা। এরপরে কার্যত রাগে চিৎকার করতে থাকে সে।

সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের সরকার করোনা নিয়ন্ত্রণের জন্য দোকান খোলার ক্ষেত্রে “লেফট-রাইট সিস্টেম” চালু করেছে। যার দরুন একদিন ডানদিকের দোকানগুলি খোলা যাবে এবং অপরদিন বামদিকের দোকানগুলি।

সূত্রের খবর, ওই ছেলেটি এই “লেফট- রাইট” সিস্টেম ভেঙেছিল, যার দরুন তার থেকে ঘুষ চাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল প্রশাসনের কর্মীরা।

প্রসঙ্গত করোনা ভাইরাসেরর পাশাপাশি লকডাউনে ক্রমশ থাবা চওড়া করছে অভাব-অনটন। বহু কলকারখানা বন্ধ। কন্টেনমেন্ট জোনের আওতায় আসার জন্য মাঝে মাঝে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দোকানপাটও। এই অবস্থায় অনেকেই পরিবারের সকলের পেটে দুমুঠো ভাতের জোগান দিতে অস্থায়ী সবজির দোকান দিচ্ছে।

মধ্যপ্রদেশের ঘটনাটি ক্ষেত্রে ১০০ টাকা ঘুষ দিতে অস্বীকার করায় ছেলেটির ঠেলার সমস্ত ডিম ভেঙে ফেলা হয়। ঘটনাটির ভিডিও সামনে আসতেই প্রশ্ন উঠছে মধ্যপ্রদেশ প্রশাসনের ওপর।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.