সোমবার দিল্লি যাওয়ার আগেই মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী

সোমবার দিল্লি যাওয়ার আগেই মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী
সোমবার দিল্লি যাওয়ার আগেই মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী

তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হয়ে ২৬ জুলাই প্রথম দিল্লি যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওইদিনই সোমবার দিল্লি উড়ে যাওয়ার আগে তড়িঘড়ি মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকলেন তিনি। দিল্লি যাওয়ার আগে সেইদিনই কি কারণে হঠাৎ মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

নবান্ন সূত্রে খবর, দিল্লি যাওয়ার আগে সোমবার বেলা একটায় নবান্নে এই বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই ওই বৈঠকে সকল মন্ত্রীদের উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। বৈঠক শেষে তড়িঘড়ি দিল্লির উদ্দেশ্যে পাড়ি দেবেন তিনি। দিল্লি যাওয়ার আগে হঠাৎ কি কারণে জরুরি বৈঠক ডাকলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সে বিষয়ে অবশ্য স্পষ্ট ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি সংশ্লিষ্ট মহল থেকে।

এদিকে ২৬ তারিখ দিল্লি যাওয়ার পরেই ২৮ তারিখ দিল্লির বঙ্গভবনে একশটি বিজেপি বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক রয়েছে তার। সেখানে কোন কোন দলের নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে তা নিয়ে ইতিমধ্যেই চূড়ান্ত তালিকা তৈরি করছে তৃণমূল কংগ্রেস। এছাড়াও দিল্লি গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে তার।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই তৃণমূলের সংসদীয় দলের চেয়ারপার্সন করা হয়েছে তাকে। অতএব জাতীয় রাজনীতিতে প্রথম পদক্ষেপ শুরু হয়ে গিয়েছে তার। এদিকে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে ইতিমধ্যেই সংগঠনকে শক্তিশালী করতে শুরু করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই দিল্লি যাওয়ার আগে জরুরী ভিত্তিতে তার মন্ত্রিসভার বৈঠক যে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।