কলকাতারাজনীতিরাজ্যশীর্ষ সংবাদ

দরিদ্র সনাতনী ব্রাহ্মণদের জন্য সুখবর, ৮০০০ জন পুরোহিতকে মাসে ১০০০ টাকা করে ভাতা দেওয়ার ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ গরিব পুরোহিত, দরিদ্র সনাতনী ব্রাহ্মণদের জন্য সুখবর। এবার থেকে পুরোহিতের ভাতা দেবে রাজ্য সরকার সোমবার নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার থেকে ৮০০০ জন পুরোহিতকে মাসে ১০০০ টাকা করে ভাতা দেওয়া হবে বলে এদিন জানালেন তিনি। পাশাপাশি, যাঁদের বাড়ি নেই তাঁদের বাংলার আবাস যোজনার বাড়ি দেওয়া হবে।

বাংলায় ক্ষমতায় আসার পরপরই ইমাম ভাতা চালু করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সেই পদক্ষেপকে সংখ্যালঘু তোষণ বলে সমালোচনা করেছিলেন বিরোধীরা। অনেকের বক্তব্য ছিল, এতে সংখ্যাগুরুর আবেগও আহত হয়েছে। এবার আসন্ন বিধান সভা নির্বাচনের ৬ মাস বাকি থাকতেই পুরোহিত ভাতা শুরু করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর এই ঘোষণাকে তাই অনেকেই রাজনীতি ও ভোটের সঙ্গে জুড়ে দেখছেন।

এদিন নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, “আমাদের রাজ্যে যাঁরা ইমাম আছেন বা মোয়াজ্জেম আছেন, তাঁদের নিয়ে অনেকে বড় বড় কথা বলেন। তাঁদের ওয়াকফ বোর্ড কেন দেবে! আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যাঁরা গরিব পুরোহিত, অনেকেই আমাদের কাছে সমস্যার কথা বলেছেন, সে সব কথা মাথায় রেখে আমরা হাজার টাকা করে মাসে তাঁদেরও দেব। সেইসঙ্গে যাঁদের বাড়ি নেই, তাঁদের বাড়িও বানিয়ে দেব বাংলা আবাস যোজনায়।” পুজোর আগে থেকেই যাতে এই পুরোহিত ভাতা শুরু করা যেতে পারে, তা মুখ্যসটিবকে দেখে নেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “সনাতন ধর্মের অনেকেই একটা অনুরোধ করেছেন তাঁদের জন্য তীর্থস্থান গড়ে দেওয়ার। আমরা তা গড়ার জন্য কোলাঘাটে জমি চিহ্নিত করেছি”। এর পরেই দক্ষিণেশ্বরে স্কাইওয়াক প্রসঙ্গ টেনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন “ইতিমধ্যেই দক্ষিণেশ্বরে দর্শনার্থীদের জন্য স্কাইওয়াক তৈরি করা হয়েছে এবার সেই চিন্তাভাবনা চলছে কালীঘাটেও”।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.

Back to top button