শিল্পপতিদের সফরসঙ্গী করেই মুম্বই পাড়ি দিচ্ছেন মমতা

শিল্পপতিদের সফরসঙ্গী করেই মুম্বই পাড়ি দিচ্ছেন মমতা
শিল্পপতিদের সফরসঙ্গী করেই মুম্বই পাড়ি দিচ্ছেন মমতা

উদ্দেশ্য বাংলায় শিল্পের জন্য বিনিয়োগ টানা। আর সেই কারণেই আজ মঙ্গলবার মুম্বই উড়ে যাচ্ছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ দুদিনের ঠাসা কর্মসূচি নিয়ে মুম্বই যাচ্ছেন তিনি। জানা গিয়েছে, এবার তাঁর সফরসঙ্গী হতে পারেন শিল্পপতিরাও।

রাজ্যের মসনদে তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতা কায়েম করে এবার জাতীয় রাজনীতি লক্ষ্য তৃণমূলের। আর তাকেই পাখির চোখ করে অবিজেপি দলগুলিকে নিয়ে জোট বাঁধতে চাইছে ঘাসফুল শিবির। সেই লক্ষ্যেই বারবার দিল্লী সফরে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। তবে এবার রাজ্যের শিল্পে বিনিয়োগ বাড়াতে মুম্বই যাচ্ছেন তিনি।

আগামী ২০ ও ২১ এপ্রিল রাজ্যে বিশ্ব বাংলা বাণিজ্য সম্মেলন, আর সেখানেই বিনিয়োগ টানতে দেশ-বিদেশের শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক করার পরিকল্পনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই এই সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি। মুম্বই গিয়ে একাধিক শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন মমতা। সেই তালিকায় মুকেশ আম্বানি, অনিল আম্বানি, লক্ষ্মী মিত্তল ও জিন্দাল গোষ্ঠীরা যেমন রয়েছেন তেমনই বৈঠক হতে পারে গৌতম আদানির সঙ্গেও।

জানা যাচ্ছে, এই দুই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও তাঁর সঙ্গে থাকছেন, মুখ্যসচিব, শিল্পসচিব, পর্যটন সচিব, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সচিব এবং রাজ্য শিল্পোন্নয়ন নিগমের চেয়ারম্যান।

বুধবার সন্ধ্যায় তিনি যোগ দেবেন দেশের প্রায় দু’শো বিনিয়োগকারীদের এক সম্মেলনে যোগ দেবেন। ইয়ং প্রেসিডেন্টস অর্গানাইজেশনের ওই অনুষ্ঠানে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তুলে ধরবেন এই রাজ্যে বিনিয়োগের সম্ভাবনা। পাশাপাশি শিল্পপতিদের তিনি আহ্বান জানাবেন বাংলায় বিনিয়োগের জন্য।

এছাড়াও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের সঙ্গেও বৈঠকে বসতে পারেন মমতা। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে। আলোচনা হবে এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ারের সঙ্গেও। এই প্রসঙ্গে মমতা জানিয়েছিলেন, “আমি মুম্বই যাচ্ছি। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে ও শরদ পাওয়ারের সঙ্গে দেখা করব”।