রাজ্য মন্ত্রিসভায় বেশ কিছু রদবদল! কার দায়িত্বে কোন মন্ত্রক?

রাজ্য মন্ত্রিসভায় বেশ কিছু রদবদল! কার দায়িত্বে কোন মন্ত্রক?
রাজ্য মন্ত্রিসভায় বেশ কিছু রদবদল! কার দায়িত্বে কোন মন্ত্রক? / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্ক: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভায় বড়সড় রদবদল হল আজই। রদবদল হলেও মমতার মন্ত্রিসভায় এখনই কোনও নতুন মুখ আসছে না। তার বদলে পুরনো মন্ত্রীদের হাতেই অর্পিত হল অতিরিক্ত দায়িত্ব।

এদিন রদবদলের পর রাজ্যের নতুন অর্থমন্ত্রী হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর অর্থদপ্তরের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তরের পূর্ণ মন্ত্রিত্ব, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বের পাশাপাশি এই অতিরিক্ত দায়িত্ব সামলাবেন তিনি এখন থেকে। অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র হচ্ছেন রাজ্যের অর্থ বিষয়ক মুখ্য উপদেষ্টা। এই নতুন পদে পূর্ণমন্ত্রীর পদমর্যাদা পাবেন তিনি। মঙ্গলবার রাজ্য সরকারের তরফে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে। এদিন রদবদলের পর স্বাস্থ্য, অর্থ, স্বরাষ্ট্র, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নের মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরের দায়িত্ব থাকছে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণের পর, পঞ্চায়েত মন্ত্রী হলেন পুলক রায়। পঞ্চায়েত প্রতিমন্ত্রী হলেন বেচারাম মান্না। ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন মানস ভুঁইঞা এবং শিল্প পুনর্গঠন মন্ত্রকের দায়িত্বে পার্থ চট্টোপাধ্যায়

পুলক রায় এতদিন তিনি জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তরের দায়িত্ব সামলেছেন। এবার তাঁকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হল। আর এই দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হলেন বেচারাম মান্না। ইতিপূর্বে তিনি মন্ত্রী ছিলেন না। মন্ত্রিসভায় রদবদলের পর নতুন দায়িত্ব পেলেন তিনি।

অন্যদিকে, দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ সাধন পাণ্ডে। তাই তাঁর ক্রেতা সুরক্ষার দপ্তরের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর মৃত্যুর পর, সেই দপ্তরটিও ফাঁকা হয়েছিল। এবার সেই দপ্তরের দায়িত্ব দেওয়া হল মানস ভুঁইঞাকে। জলসম্পদ দপ্তরের পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব পেলেন তিনি।

আবার অমিত মিত্রের হাতে ছিল শিল্প পুনর্গঠন দপ্তরও। এবার শিল্প ও বাণিজ্যর পাশাপাশি এই দায়িত্বও সামলাবেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এই দপ্তরেরও প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন বেচারাম মান্না। এছাড়াও স্বনির্ভর গোষ্ঠী উন্নয়ন দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন শশী পাঁজা। উল্লেখ্য, মন্ত্রিসভার পরবর্তী বৈঠক রয়েছে ২৯ নভেম্বর।