রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী করলেন মমতা, চিঠি লিখলেন মোদীকে

রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী করলেন মমতা, চিঠি লিখলেন মোদীকে
রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী করলেন মমতা, চিঠি লিখলেন মোদীকে

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একটানা বৃষ্টি এবং ডিভিসি’র জল ছাড়ার কারণে রাজ্যের একাধিক জেলায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য এই বন্যা পরিস্থিতির জন্য ডিভিসি’র জল ছাড়াকেই কারণ বলে মনে করছেন। তিনি দাবী করেছেন না জানিয়ে অত্যাধিক পরিমাণে জল ছাড়ার কারণেই এই বন্যা।

এই পরিস্থিতিতে এবার ডিভিসিকে কাঠগড়ায় তুলে, কবে, কখন কত পরিমাণ জল ছাড়া হয়েছে সেই তালিকা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কয়েকদিন আগেই আকাশ পথে রাজ্যের বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্রী। হুগলির আরামবাগে পৌছে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। জমা জলে নেমে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গেও কথা বলেন।

এরপরই তিনি ডিভিসি’র সমালোচনা করেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন যে, ‘রাজ্যকে না জানিয়ে জল ছেড়েছে DVC। চাইলে আরও ২ লক্ষ কিউসেক জল ধরে রাখতে পারে, যদি ড্রেজিং করে। তা নাহলে একদিন এমন দিন আসবে আমাদের DVC-র কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ চাইতে হবে। কারণ বছরে চারবার করে জল এলে, সব টাকা জলে চলে যাচ্ছে।’ শুধু ডিভিসি’র তুলোধোনা করাই নয়, ঝাড়খণ্ড সরকারকেও পরোক্ষে বার্তা দেন।

কিন্তু এই সমস্যার স্থায়ী সমাধান কী করে সম্ভব? এবার তাই রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ দাবী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মোদীকে চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘অবিলম্বে আপনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি এবং অনুরোধ করছি যাতে কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় পশ্চিমবঙ্গ এবং ঝাড়খণ্ডের সরকার এবং দামোদর ভ্যালি কর্পোরেশনের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে। বছরের পর বছর আমাদের রাজ্যের এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানে পৌঁছাতে তা সাহায্য করবে’। মুখ্যমন্ত্রীর আরও বলেছেন যে, ‘আমি দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, আপনাকে লেখা আমার আগের চিঠির জবাব এখনও কেন্দ্রীয় সরকার দেয়নি। আমি যে বিষয়গুলি উত্থাপন করেছি তা লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবনকে প্রভাবিত করে, এবং আমি অনুরোধ করব যে কেন্দ্র আর দেরি না করে কিছু উপযুক্ত পদক্ষেপ নেবে।’

শুধুমাত্র ডিভিসি’র বিরুদ্ধে ক্ষোভই উগরে দেওয়াই নয়, রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতিকে ‘ম্যানমেড’ বলেও উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি সরাসরি বলেছেন, ‘যদি বৃষ্টির জন্য বন্যা হত, তাহলে বুঝতাম। নিঃসন্দেহে বেশি বৃষ্টি হচ্ছে, আমরা সামলাচ্ছি। বন্যাটা কিন্তু হচ্ছে জল ছাড়ার জন্য। ম্যানমেড বন্যা।’ পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাধারণ মানুষকে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান করার জন্যও আহ্বান জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।