সংঘাতের আশঙ্কায় বারাসাতে বাতিল হল মমতার সভা

সংঘাতের আশঙ্কায় বারাসাতে বাতিল হল মমতার সভা
সংঘাতের আশঙ্কায় বারাসাতে বাতিল হল মমতার সভা

প্রস্তুতি চললেও অবশেষে পিছিয়ে গেল বারাসাতে মুখ্যমন্ত্রীর সভা। তবে বারাসাতে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সভা হবে সূচি অনুযায়ী।একই জায়গায় একই দিনে দুই হেভিওয়েট প্রার্থীর সভা হলে গন্ডগোল হতে পারে। সেই আশঙ্কা থেকেই এদিন বাতিল করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর সভা। ইতি মধ্যেই কড়া নিরাপত্তায় ঘিয়ে ফেলা হয়েছে বারাসাতকে।

রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত একই দিনে উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সদর বারাসতের মাটিতে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাচনী জনসভার প্রস্তুতি চলছিল। তবে একই দিনে সভা হলে দুই প্রতিপক্ষের মধ্যে অশান্তির আশঙ্কা করেছিল প্রশাসন। অন্যদিকে শাসক দল তৃণমূল ও প্রশাসনের চক্রান্তে একই দিনে দু’টি সভা ফেলে গন্ডগোল করতে চাইছে বলে সুর চড়া করেছে বিজেপি। সেই কারণেই আগে থেকে যেহেতু প্রধানমন্ত্রীর সভার অনুমতি নেওয়া ছিল তাই মুখ্যমন্ত্রীর সভা বাতিল করা হয়েছে শেষ মুহূর্তে।

যদিও বিজেপি গন্ডগোলের আঁচ পেলেও তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের দাবি, সকাল ১১টা নাগাদ তাদের দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা হবে বারাসত স্টেডিয়ামে। আর বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ বারাসাত কাছাড়ি ময়দানে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী। ফলে দু’টি সভার মধ্যে বিস্তর সময়ের ফারাক থাকছে। সে ক্ষেত্রে কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে গন্ডগোল না পাকালে গন্ডগোলের কোনও সম্ভাবনাই নেই।

এদিকে দুই হেভিওয়েট নেতৃত্বের একই দিনে একই জায়গায় সভা থাকলে এলাকায়ও যানজটের সৃষ্টি হবে। এছাড়াও উচ্চ পর্যায়ের নিরাপত্তা নিয়েও সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই সব মিলিয়ে এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সভা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় জেলা প্রশাসন।