রাত থেকেই সজাগ বিদ্যুৎ বিভাগের কন্ট্রোল রুম, রইল হেল্প লাইন নম্বর

রাত থেকেই সজাগ বিদ্যুৎ বিভাগের কন্ট্রোল রুম, রইল হেল্প লাইন নম্বর
রাত থেকেই সজাগ বিদ্যুৎ বিভাগের কন্ট্রোল রুম, রইল হেল্প লাইন নম্বর

ফের বিরূপ হয়েছে আবহাওয়া। বিদ্যুৎ সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা খতিয়ে দেখতে কন্ট্রোলরুম খুলল রাজ্যের বিদ্যুৎ দফতর। তদারকিতে রয়েছেন খোদ বিদ্যুৎ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটায় বিদ্যুৎ ভবনের কন্ট্রোল রুম থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিন্ন জেলার বিদ্যুৎ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন তিনি।

নিম্নচাপ ও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাসের কারণে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে মঙ্গলবার বিদ্যুৎ ভবনে সর্বক্ষণের কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। অরূপ বিশ্বাসের পাশাপাশি ছিলেন বিদ্যুৎ দপ্তরের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব শ্রী সুরেশ কুমার, সি.এম.ডি-ডব্লু.বি.এস.ই.ডি.সি.এল শ্রী শান্তনু বোস ও বিদ্যুৎ দপ্তর এর অন্যান্য অধিকর্তারা।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সব জেলার বিদ্যুতের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন মন্ত্রী। টানা ৩দিন এই কন্ট্রোল রুম চলবে বলে জানান তিনি। একই সঙ্গে অরূপ বিশ্বাস জানান, “সমস্ত অঞ্চলে মাইকিং এর মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করা হয়েছে ও গ্রাহকদের এসএমএসের মাধ্যমেও অবগত করা হয়েছে। এছাড়াও যেসব সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে”। বিদ্যুৎ দফতরের তরফে সতর্কতা নিয়ে জানানো হয়েছে,

১. প্রত্যেকটি জেলায় 24X7 কন্ট্রোল রুম খোলা থাকবে তিন দিনের জন্য। প্রয়োজনে তা আরো কয়েকদিন বাড়তে পারে। এছাড়াও জেলার আধিকারিকদের সঙ্গে বিদ্যুত দপ্তরের জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকদের সমন্বয় সাধন করা হয়েছে।

২. বিদ্যুৎ দপ্তরের অতিরিক্ত মুখ্য সচিবের পক্ষ থেকে সব জেলার জেলা শাসক, পুলিশ সুপার, কর্পোরেশন, জেলা পরিষদ ও সি.ই.এস.সি-কে পোষ্ট, ফিডার বক্স, মিটার বক্স ও বিদ্যুতের তার যুদ্ধকালিন তৎপরতায় পরীক্ষা করার জন্য নির্দেশিকা পাঠান হয়েছে।

৩. সংবাদপত্র ও সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে সতর্কতা অবলম্বনের বিষয়ে অবগত করা হয়েছে।

৪. ট্রান্সফর্মার, ফিডার বক্স, সাব-স্টেশানে জল জমে থাকলে সেখানে বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যতক্ষণ না পর্যন্ত স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিদ্যুৎ চালু করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ থাকবে।

৫. ১৮৮৯ টি মোবাইল ভ্যান এবং পর্যাপ্ত টিম সব জেলা জুড়ে প্রস্তুত রয়েছে।

৬. কন্ডাক্টর, কেবল এবং ট্রান্সফর্মার পর্যাপ্ত পরিমাণে মজুত রয়েছে।

এছাড়াও বিদ্যুৎ দফতরের টোল ফ্রি নম্বর ১৯১২১, এবং হোয়াটস অ্যাপ নম্বর ৮৯০০৭৯৩৫০৩ ও ৮৯০০৭৯৩৫০৪-এর মাধ্যমে যে কেউ তাদের সমস্যা ছবি সহ জানাতে পারবেন।