জঘন্য কাণ্ড! ফের ভাইরাল থুথু দিয়ে রুটি বানানোর ভিডিও! শ্রীঘরে ২ অভিযুক্ত

জঘন্য কাণ্ড! ফের ভাইরাল থুথু দিয়ে রুটি বানানোর ভিডিও! শ্রীঘরে ২ অভিযুক্ত / Image Source- Screengrab from Video Tweeted By @jitendesharma
জঘন্য কাণ্ড! ফের ভাইরাল থুথু দিয়ে রুটি বানানোর ভিডিও! শ্রীঘরে ২ অভিযুক্ত / Image Source- Screengrab from Video Tweeted By @jitendesharma

বেশ কিছুদিন আগেই ভাইরাল হয়েছিল বিয়েবাড়িতে থুতু লাগিয়ে রুটি তৈরির এক ভিডিও। উত্তরপ্রদেশের সেই ঘটনার ভিডিওটি ভাইরাল হতেই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছিল। অভিযুক্তকে রাতারাতি গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল। ফের একবার প্রকাশ্যে এল একই ঘটনার আরেকটি ভিডিও। এবার ঘটনাস্থল দিল্লি।

সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে দিল্লির এক রাস্তার ধারের এক দোকানে চাপাটি বানানোর একটি ভিডিও। সেখানে দেখা যাচ্ছে, গলার থেকে থুতু মুখে এনে তা রুটির উপর দিয়ে উনুনের গরম আঁচে সেঁকে দেওয়া হচ্ছে। প্রতিটা রুটিই এই একই পদ্ধতিতে বানাচ্ছেন রাঁধুনি। বর্তমান করোনাকালীন পরিস্থিতিতে এ এক ভয়ানক কাণ্ড তো বটেই! কারণ, এর মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কাও বিপুল।

সূত্রের খবর, দিল্লির খেয়ালা এলাকার চাঁদ নামের এক দোকানে চলত রুটি তৈরির এই কাজ। তবে দোকান চালানোর কোনও লাইসেন্সই নাকি ছিল না। ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে হাজির হয়েছে দিল্লি পুলিশ। অভিযুক্ত দুই দোকানের কর্মীকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, তাদের নাম সাবি আনওয়ার এবং ইব্রাহিম। দু’জনই বিহারের বাসিন্দা। এতদিন ধরে এই পদ্ধতিতেই রুটি বানিয়ে আসছেন তারা। দুজনকেই আপাতত পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারী মাসেও ঠিক একই রকম একটি ঘটনা ঘটেছিল। উত্তরপ্রদেশের বিয়েবাড়ির ঘটনাটিরও আগে সেটি ঘটেছিল মীরাটের অরোমা গার্ডেন রোড এলাকায়। সেসময় পুলিশ নওশাদ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি (আইপিসি) এর ধারা ২৬৯, ২৭০, ১১৮ এবং মহামারী আইনের ৩৩ ধারায় মামলাও দায়ের করা হয়েছিল।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.