৯১ দিন পর দেশে দৈনিক আক্রান্তর সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে! টিকাকরণে নয়া রেকর্ড

৯১ দিন পর দেশে দৈনিক আক্রান্তর সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে! টিকাকরণে নয়া রেকর্ড
৯১ দিন পর দেশে দৈনিক আক্রান্তর সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে! টিকাকরণে নয়া রেকর্ড / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এগোচ্ছে দেশ। দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা কমে নেমে এল ৫০ হাজারের নিচে। পাশাপাশি টিকাকরণে দেশে নয়া রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। যা বড় স্বস্তির খবর।

৯১ দিন পর ভারতে দৈনিক আক্রান্তর সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৬৪০ জন। ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ কোটি ৯৯ লক্ষ ৭৭ হাজার ৮৬১।

অন্যদিকে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ১৬৭ জন। ফলে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩ লক্ষ ৮৯ হাজার ৩০২ জন। দেশে করোনায় দৈনিক সংক্রমণের গ্রাফ অনেকদিন ধরেই নিম্নমুখী ছিল। তবে, মৃত্যুর পরিসংখ্যান চিন্তা বাড়াচ্ছিল। এখন মৃত্যুর সংখ্যাও ক্রমশ কমছে। যা অবশ্যই স্বস্তিজনক।

এর পাশাপাশি করোনার মোকাবিলায় স্বস্তি দিচ্ছে অ্যাকটিভ কেস। এদিন নতুন করে, কেস কমেছে ৩৮ হাজারেরও বেশি। যার ফলে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৫২১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৮১ হাজার ৮৩৯ জন। এই মুহূর্তে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা মোট ২ কোটি ৮৯ লক্ষ ২৬ হাজার ৩৮। দেশে এই নিয়ে টানা ৪০ দিন দৈনিক আক্রান্তর চেয়ে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা বেশি থাকল।

২১ জুন পর্যন্ত সারা দেশে মোট ২৮ কোটি ৮৭ লক্ষ করোনা টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। গতকাল রেকর্ড ৮৬ লক্ষ ১৬ হাজার টিকাকরণ হয়েছে। যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। আইসিএমআর জানিয়েছে, ২১ জুন ১৬,৬৪,৩৬০ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সবমিলিয়ে দেশে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৩৯,৪০,৭২,১৪২।

উল্লেখ্য, অ্যাকটিভ আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে বিশ্বে ভারত তৃতীয় স্থানে রয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারত দ্বিতীয় স্থানে। আমেরিকা ও ব্রাজিলের পর করোনায় ভারতের মৃতের সংখ্যা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি।