চাপ বাড়ছে করোনা পরীক্ষাকেন্দ্রে! আরটি-পিসিআর নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

চাপ বাড়ছে করোনা পরীক্ষাকেন্দ্রে! আরটি-পিসিআর নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের
চাপ বাড়ছে করোনা পরীক্ষাকেন্দ্রে! আরটি-পিসিআর নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের / প্রতীকী ছবি

গোটা দেশে যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে আরটি-পিসিআর পরীক্ষা কেন্দ্র গুলির উপর বিপুল চাপ পড়ছে। এর ফলে দু-তিনদিনের রিপোর্ট আসতে সময় লাগছে তাই এক সপ্তাহ। এবং এতে যাদের একান্তই প্রয়োজন পরীক্ষা করার তারা অনেক সময় ভুক্তভোগী হচ্ছেন। এই সমস্ত পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবার আরটি-পিসিআর করার ক্ষেত্রে নিয়ম খানিকটা শিথিল করলো কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের তরফে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, অন্তঃ রাজ্যে যাতায়াতের ক্ষেত্রে যাত্রী যদি সুস্থ থাকে বা কিছুদিন আগেই যদি সে হাসপাতাল থেকে করোনা মুক্ত হয়ে ছাড়া পায় তাহলে সেক্ষেত্রে করোনা পরীক্ষা করার দরকার নেই। এছাড়াও কোনও যাত্রীর শরীরের তাপমাত্রা যদি স্বাভাবিক থাকে, তাহলে ভ্রমণকারীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করানোর দরকার নেই। পাশাপাশি র‌্যাপিড বা গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড আরটি-পিসিআর পরীক্ষার ফলাফল যাঁদের এক বার পজিটিভ এসেছে তাঁদেরও আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করার দরকার নেই বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

একই সঙ্গে ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, যদি কোন জাতির মধ্যে করোনা সংক্রমনের লক্ষণ প্রবলভাবে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে তাকে পরীক্ষা করতেই হবে। পাশাপাশি ওই ধরনের যাত্রীকে অপ্রয়োজনে যাত্রা করতেও নিষেধ করা হয়েছে। কারণ কেন্দ্রের মতে এই মুহূর্তে আরটি-পিসিআর কিট কম রয়েছে। তাই যাদের প্রয়োজন নেই তাদের পরীক্ষা করে এই কিট নষ্ট করা হলে, যাদের সত্যি প্রয়োজন তারা পরিষেবা পাচ্ছেন না। ফলে সে সমস্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা শুরু করা যাচ্ছে না।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.