দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তে নয়া রেকর্ড! একদিনে দেশে আক্রান্ত ২ লক্ষ ৯৫ হাজারের বেশি

দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তে নয়া রেকর্ড! একদিনে দেশে আক্রান্ত ২ লক্ষ ৯৫ হাজারের বেশি
দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তে নয়া রেকর্ড! একদিনে দেশে আক্রান্ত ২ লক্ষ ৯৫ হাজারের বেশি / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশব্যাপী ভয়াবহ আকার নিয়েছে মারণ করোনা। প্রতিদিন ঝড়ের গতিতে বাড়ছে সংক্রমণ। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এই পরিস্থিতিতে বেশ কিছু রাজ্যে হাসপাতালে বেডের সমস্যা দেখা দিয়েছে। বেড খালি না থাকার জন্য এক একটা বেডে দুই থেকে তিনজনকে রাখা হচ্ছে। সঙ্গে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের অভাবও।

প্রতিদিন ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্নের মতো তাড়া করে বেড়াচ্ছে মারণ করোনা। এই মুহূর্তে দেশজুড়ে যা করোনা পরিস্থিতি, তাতে ভয়ঙ্কর, উদ্বেগজনক ইত্যাদি কোনও বিশেষণই যথেষ্ট নয়। প্রতিদিন নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করছে মারণ করোনা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে রূপ পরিবর্তন করে, আরও ভয়ানক চেহারা নিয়েছে মারণ করোনা। সর্বকালীন রেকর্ড গড়ছে দৈনিক সংক্রমণ। গত বছর যখন করোনা সংক্রমণ সবথেকে বেশি ছিল। তখনও এই এত সংখ্যায় সংক্রমণ হয়নি।

দেশের করোনা পরিস্থিতি এতোটাই ভয়াবহ যে, আমেরিকাকেও সেই ভয়াবহতা ছাপিয়ে যাচ্ছে। অথচ গত বছর এই পরিস্থিতি হয়নি। আর এই বছরে শুধুমাত্র করোনা নিয়ে মানুষের গা-ছাড়া মনোভাব, উদাসীনতা করোনাবিধি না মানা এবং করোনা নিয়ে ভ্রান্ত ধারণা পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ করে তুলেছে। প্রায় ভেঙে পড়েছে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে বিশ্ব-তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।

দেশের দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ফের একবার ২ লক্ষ ছাড়াল। এই নিয়ে পরপর ৬ দিন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা ভাইরাসে ২ লক্ষ ৯৫ হাজার ৪১ জন। দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের নয়া রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। এই বৃদ্ধির জেরে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৫৬ লক্ষ ৯ হাজার ৪ জোন। আমেরিকার পর, ভারত এখন দ্বিতীয় দেশ যেখানে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ পার করেছে। বর্তমানে আমেরিকার থেকেও ভারতে অনেক দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে মারণ করোনা।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ দেশের দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাকেও বাড়িয়ে দিয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২,০২৩ জনের। যা মার্চের শুরুতেও দেশের দৈনিক মৃত্যু থাকছিল ১০০-১৫০ ঘরে। দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৮২ হাজার ৫৭০ জনের। দেশে কোভিড আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১,৩২,৬৯,৮৩০ জন। সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২১ লক্ষ ৫০ হাজার ১১৯ জন। দেশে সুস্থতার হার ৮৫ শতাংশ। আর এখনও পর্যন্ত টিকাকারণ হয়েছে ১৩ কোটি ১ লক্ষ ১৯ হাজার ৩১০ জনের।

দেশের মধ্যে মহারাষ্ট্র, কেরল, দিল্লি এবং কর্ণাটকের দৈনিক সংক্রমণ সবথেকে বেশি। সরকারি হিসেব অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ লক্ষ ৬০ হাজার ৩৫৯ আর মৃত্যু হয়েছে ৬১,৩৪৩ জনের৷ গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬২,০৯৭ জন আর মৃত্যু হয়েছে ৫১৯ জনের। কেরলে আক্রান্ত ১২ লক্ষ ৭২ হাজার ৬৪৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪,৯৭৮। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১৯,৫৭৭ জন।

কর্ণাটকে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ লক্ষ ৭৮ হাজার ৬৪৪ আর মৃত্যু হয়েছে ১৩,৬৪৬ জনের। দিল্লিতে সংক্রমিত হয়েছেন ৯ লক্ষ ৫ হাজার ৫৪১ জন। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১২,৬৩৮ জনের। উত্তরপ্রদেশে করোনায় আক্রান্ত ৯ লক্ষ ৯ হাজার ৪০৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০,১৫৯ জনের। দেশের মধ্যে অষ্টম স্থানে পশ্চিমবঙ্গ, এখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৭৮,১৭২ জন, আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০,৬৫২।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.