চোখ রাঙাচ্ছে করোনা! দেশে একদিনে মৃত্যু ১৫৪ জনের! সতর্ক না হলে, সামনে আরও বড় বিপদ

চোখ রাঙাচ্ছে করোনা! দেশে একদিনে মৃত্যু ১৫৪ জনের! সতর্ক না হলে, সামনে আরও বড় বিপদ
চোখ রাঙাচ্ছে করোনা! দেশে একদিনে মৃত্যু ১৫৪ জনের! সতর্ক না হলে, সামনে আরও বড় বিপদ / প্রতীকী ছবি / (Image Source: Facebook Post By @wbdhfw)

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশে ফের নতুন করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে করোনা। ক্রমেই বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। দেশের মধ্যে বেশ কিছু রাজ্যে করোনা সংক্রমণের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। এর মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্রের মতো রাজ্য। মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু জেলায় করোনা সংক্রমণ ভয়ঙ্কর চেহারা নিয়েছে।

দেশের মধ্যে ১৯ টি জেলায় গত কয়েকদিনে সবথেকে বেশি করোনা সংক্রমণের সংখ্যা সামনে এসেছে। এই ১৯ টি জেলার মধ্যে আবার ১৫ টি জেলা মহারাষ্ট্রেরই। এক কথায় এই মুহূর্তে দেশে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে মারণ করোনা। উল্লেখ্য, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তেমনটাই সূত্রের খবর। গত ২৯ নভেম্বরের পর এই সংখ্যাই এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে কড়া ভাষায় করোনা বিধি পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হতেই একদিনে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৭২৬ জন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৫৪ জনের। এই মুহূর্তে দেশে করোনার অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,১৫,১৪,৩৩১ জনে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, এক দিন আগেই ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩৫,৮৭১।

এই মুহূর্তে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্যে। সেখানকার পরিস্থিতি ভয়াবহ। এইসব রাজ্যের তালিকায় নাম রয়েছে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু কেরালা, পঞ্জাব, কর্নাটক ও গুজরাটের নাম। সরকারি হিসেবে দেখা গিয়েছে এই পাঁচ রাজ্যে দেশের সর্বাধিক করোনা রোগীর খোঁজ মিলেছে গত একদিনে। গত সপ্তাহের তুলনায় প্রায় ২০ হাজার বেড়ে গিয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা।

মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হলেন ২৫ হাজার ৮৩৩ জন। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে সর্বোচ্চ সংক্রমণে একদিনে দেখা গিয়েছিল আক্রান্ত হচ্ছেন ২৪ হাজার জন, বৃহস্পতিবারের তথ্য সেই রেকর্ড পার করে গিয়েছে। একই সঙ্গে বৃহস্পতিবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। মহারাষ্ট্রের অবস্থা সব থেকে উদ্বেগজনক। মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৩,৯৬,৩৪০ জন। এর মধ্যে ৫৩,১৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যেও করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১,৭৫,৫৬৫ জন। শুধুমাত্র গতকালই ১২,৭৬৪ জনকে সুস্থ করে তোলা হয়েছে। রাজ্যজুড়ে মোট ১,৬৬,৩৫৩ টি করোনার অ্যাকটিভ কেস রয়েছে।

মহারাষ্ট্রের করোনার ভাইরাসের সবচেয়ে খারাপ অবস্থা নাগপুরে। নাগপুরে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৮২,৫৫২ আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১,৫৪,৪১০ জন। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪,৫২৮ জনের। নাগপুরে ২১ মার্চ অবধি পুরোপুরি লকডাউন জারি থাকছে, এই লকডাউন শুরু হয়েছে ১৫ মার্চ থেকে। মহারাষ্ট্রে প্রতিদিন কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এই রাজ্যে বেশ কিছু জায়গায় সম্পূর্ণ লকডাউনের পাশাপাশি আংশিক লকডাউন এবং নাইট কার্ফু জারি করা হয়েছে। এদিকে মুম্বইয়ে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

এদিকে পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনী প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে করোনার বাড়বাড়ন্ত চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে ভোট সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করাই এখন নির্বাচন কমিশনের এবং প্রশসনের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.