টলিউডের দখলদারি নিয়ে পিছিয়ে থাকতে নারাজ সিপিএম

টলিউডের দখলদারি নিয়ে পিছিয়ে থাকতে নারাজ সিপিএম
টলিউডের দখলদারি নিয়ে পিছিয়ে থাকতে নারাজ সিপিএম

টলিউডের দখলদারি নিয়ে প্রকাশ্যে দড়ি টানাটানি চলছে তৃণমূল আর বিজেপি-র মধ্যে। পিছিয়ে থাকতে রাজি নয় সিপিএমও। এবার টালিগঞ্জকে পাখির চোখ করে বামেরা প্রার্থী আনছেন অভিনেতা দেবদূত ঘোষকে।

কিছুদিন আগেই বামেদের ব্রিগেড মিছিলে যোগদানের জন্য সোচ্চার হয়েছিলেন পরিচালক অনীক দত্ত, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। গান-কবিতা-ছড়াকে হাতিয়ার করেই একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তাঁরা বাম জোটকে ক্ষমতায় আনার জন্য আহ্বান জানিয়েছিলেন। এদিন ব্রিগেডে উপস্থিত ছিলেন, চন্দন সেন, সব্যসাচী চক্রবর্তী, শ্রীলেখা মিত্র ও সৌরভ পালোধি প্রমুখরা।

টালিগঞ্জে শক্ত ঘাঁটি বামেদের। গত নির্বাচনে কম সংখ্যক ভোটে হেরেছিল বামেরা। তাই এবার তুরুপের তাস করে দেবদূত ঘোষকে আনা হচ্ছে টালিগঞ্জে। তাঁকে এর আগেও বহুবার তাঁকে দেখা গেছে রাজনৈতিক মঞ্চে। তাঁকে কোনওবার সক্রিয় ভাবে দেখা যায়নি রাজনৈতিক দুনিয়ায়। সূত্রের খবর, ছোট থেকে বাম পরিবারের বেড়ে ওঠা দেবদূতের সঙ্গে ইতিমধ্যেই কথা বলেছেন বাম নেতারা।

ধারাবাহিক ও টিভি সিরিয়ালের পর্দায় বহুবার দেখা গেছে অভিনেতা দেবদূত ঘোষকে। জনপ্রিয়তাও ভালো তাঁর। তাই এবার টালিগঞ্জের আসন থেকে দাঁড়াবেন অভিনেতা দেবদূত ঘোষ। সূত্রের খবর, বামেদের প্রস্তাবে রাজিও হয়েছেন অভিনেতা। এছাড়া গতবারের ভোটে টালিগঞ্জ থেকে দাঁড়ানো এসএফআই নেত্রী মধুজা সেন রায়কে এবার ঝাড়গ্রামে প্রার্থী করা হতে পারে। পরিবর্তে টালিগঞ্জে এবার সিপিএমের প্রার্থী হচ্ছেন অভিনেতা দেবদূত ঘোষ। বাকিটা সম্পূর্ন প্রার্থী তালিকার পরই বোঝা যাবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.