রাজ্যে কার্যত লকডাউন ঘোষণা হতেই মদের দোকানে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা! রইল ভিডিও

রাজ্যে কার্যত লকডাউন ঘোষণা হতেই মদের দোকানে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা! রইল ভিডিও
রাজ্যে কার্যত লকডাউন ঘোষণা হতেই মদের দোকানে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা! রইল ভিডিও

করোনা সংক্রমনে রাশ টানতে কার্যত লকডাউনের পথেই হাঁটল রাজ্য। আগামী কাল, রবিবার থেকে আগামী দু’সপ্তাহের জন্য রাজ্যে চলবে লকডাউন। যা জারি থাকবে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত। বন্ধ থাকবে সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি দপ্তর। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবা চালু। আজই একথা ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। এরপরই মদের দোকানে লম্বা লাইনে দাঁড়াতে দেখা গেল সুরাপ্রেমীদের। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের ভিন্ন ভিন্ন জেলায় একাধিক মদের দোকানে দেখা গেল লম্বা লাইন।

করোনা সংক্রমণ এড়াতে রাজ্য সরকার যেখানে কার্যত লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেখানে করোনা বিধিকে উপেক্ষা করেই মদের দোকানের সামনে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা৷ আজ বিকেলে দোকান খোলার আগেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের মদের দোকানে সামনে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন বহু মানুষ। যেহেতু কাল থেকে বন্ধ থাকবে মদের দোকান; তাই সকলেরই উদ্দেশ্য, আগামী ১৫ দিনের জন্য মদ সঞ্চয় করে রাখা৷

রাজ্যে কার্যত লকডাউন ঘোষণা হতেই মদের দোকানে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা! রইল ভিডিও
রাজ্যে কার্যত লকডাউন ঘোষণা হতেই মদের দোকানে ভীড় জমাচ্ছেন সুরাপ্রেমীরা! রইল ভিডিও

এদিকে প্রকাশ্যে না আসলেও ক্যামেরার পেছনে লাইনে দাঁড়ানো কিছুজনের বক্তব্য, যেহেতু আগামীকাল থেকে ১৫ দিন বন্ধ থাকবে সমস্ত মদের দোকান। সেই কারণে লাইনে দাঁড়িয়ে মদ কিনতে এসেছেন তাঁরা। অনেকে আবার এও বলছেন, নেশার জিনিস তো কিছু করার নেই! এখন লাইনে দাঁড়িয়ে মদ কিনে রাখতে হবেই! অন্যদিকে দোকানদাররা জানাচ্ছেন, আজ সন্ধ্যে সাতটা পর্যন্ত স্টকে থাকা পুরো মদই শেষ হয়ে যাবে। এরপর আবার সরকারি নির্দেশ এলে তখনই নতুন অর্ডার দেওয়া শুরু হবে। যদিও আবগারি দফতর সূত্রে খবর, গতবারের মতো এবারও মদের হোম ডেলিভারি চালু করতে পারে সরকার।

অবশ্য এই চিত্র নতুন কিছু নয়। গতবছরও লক ডাউন ঘোষণা হওয়ার পর মদের দোকানে লম্বা লাইন দেখা গিয়েছিল। এমনকি কিছুদিন আগেও আংশিক লকডাউন চালু হওয়ার পর সামাজিক দূরত্ব বিধিকে উপেক্ষা করেই মদের দোকানে ভিড় জমিয়েছিলেন এক দল মানুষ। আগে থেকে মদ সঞ্চয় করেও রাখতে দেখা গিয়েছিল৷ এবারও রাজ্য জুড়ে ফের দেখা গেল সেই একই ছবি।

দেখুন কেমন ভীড়, রইল ভিডিওঃ