একা গাড়ি চালালেও, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, রায় দিল্লি হাইকোর্টের

একা গাড়ি চালালেও, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, রায় দিল্লি হাইকোর্টের
একা গাড়ি চালালেও, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, রায় দিল্লি হাইকোর্টের

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশজুড়ে ঝড়ের গতিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বুধবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৭৩৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কয়েকটি রাজ্যের পরিস্থিতি খুবই খারাপ। এর মধ্যে সবথেকে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রের। দিল্লির করোনা পরিস্থিতিও ভাল নয়। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ প্রসঙ্গে বারবার সতর্ক করছেন বিশেষজ্ঞরা। বারবার মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ববিধি মানা ইত্যাদি বিষয়গুলিতে জোর দিচ্ছেন।

এই আবহে দিল্লি হাইকোর্ট আজ গুরুত্বপূর্ণ রায় দিয়েছে। দিল্লি হাইকোর্ট তার রায়ে জানিয়েছে যে, এবার থেকে একা গাড়ি চালালেও, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। অর্থাৎ গাড়িতে চালক একা থাকলেও আবশ্যিকভাবে তাঁকে মাস্ক পরতে হবে।

দিল্লিতেও দেখা যাচ্ছে যে, বেশিরভাগ মানুষ করোনাবিধি ঠিকমতো মানছেন না, সেখানে করোনা পরিস্থিতি খারাপ হওয়া সত্ত্বেও। মানুষ ঠিকমতো সরকারি নির্দেশ পালন করছেন না। মাস্ক পরছেন না। বিচারপতি প্রতিভা এম সিং উক্ত রায় দেওয়ার সময় জানিয়েছেন, গাড়িকে ‘পাবলিক প্লেস’ হিসেবে ধরতে হবে। আদালতের পর্যবেক্ষণ, যিনি মাস্ক ব্যবহার করছেন, তা তাঁর জন্য যেমন রক্ষাকবচ, তেমনই আশেপাশের মানুষের জন্যও। উল্লেখ্য, চালক মাস্ক না পরলে, জরিমানার বিরোধিতা করে একটি আবেদন দাখিল করা হয় আদালতে। সেই মামলার শুনানিতেই এই রায়।

আদালত জানিয়েছে যে, বিশেষজ্ঞ এবং আন্তর্জাতিকমহল থেকেও বারবার মাস্ক ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। করোনার সংক্রমণ রুখতে মাস্কের ব্যবহার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আদালতের এও বক্তব্য যে, পথে কোথাও সিগন্যালে যখন কোনও গাড়ি এসে দাঁড়ায়, তখন অনেক সময়েই চালককে গাড়ির জানলার কাচ নামাতে দেখা যায়। এই করোনা ভাইরাস এতোটাই সংক্রামক যে, ওইটুকু সময়েও তা ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই এই সাবধানতা অবলম্বন করা জরুরি, বিশেষ করে যখন ফের নতুন করে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে করোনা।

বিচারপতি প্রতিভা এম সিং বলেন, মাস্ক রক্ষাকবচ। আত্মরক্ষার জন্য অবশ্যই মাস্ক পরা জরুরি। তিনি আরও বলেন যে, ফের বিপজ্জনক জায়গায় পৌঁছচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। তাই টিকা নেওয়া থাকলেও, প্রত্যেকের মাস্ক পরা উচিত। এদিন আদালতে সওয়াল-জবাব চলাকালীন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক জানায় যে, একা গাড়ি চালানোর সময় মাস্ক পরা সংক্রান্ত কোনও নির্দেশিকা তারা দেয়নি। রাজ্যে স্বাস্থ্য বিষয়ক বিষয় একান্তই রাজ্যের বিষয় এবং এ ব্যাপারে দিল্লির সরকারকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

অন্যদিকে, দিল্লি সরকারের তরফে আদালতকে জানানো হয়েছে যে, গতবছর এপ্রিলে এ বিষয়ে একটি সরকারি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। যেখানে বলা হয়েছিল, সরকারি বা ব্যক্তিগত, গাড়ি চালানোর সময় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। আর সেই নির্দেশিকা এখনও বহাল রয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.