‘আর কোনও পাউরি হচ্ছে না’! ‘হুক্কা বার’-এ তল্লাশি চালানোর পর টুইট দিল্লি পুলিশের! মুহূর্তেই ভাইরাল

'আর কোনও পাউরি হচ্ছে না'! 'হুক্কা বার'-এ তল্লাশি চালানোর পর টুইট দিল্লি পুলিশের! মুহূর্তেই ভাইরাল / Image Source- Tweeted By @i_addl
'আর কোনও পাউরি হচ্ছে না'! 'হুক্কা বার'-এ তল্লাশি চালানোর পর টুইট দিল্লি পুলিশের! মুহূর্তেই ভাইরাল / Image Source- Tweeted By @i_addl

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে একটিমাত্র ট্রেন্ডই- “পাউরি হো রাহি হ্যায়।” দানানির মোবিন নামে এক যুবতীর বানানো এই ভিডিওটি নিমেষেই ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়। সেই ভিডিওটিতে, দানানির, তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে কিছু মুহূর্তে উপভোগ করার সময় বলেন-“ইয়ে হমারি গাড়ি হ্যায়, ইয়ে হম হ্যায়। অর ইয়ে হমারী পাউরি হো রহি হ্যায়। (এটি আমাদের গাড়ি, এটি আমরা। এবং আমাদের পাউরি হচ্ছে)।” পাউরি হল দানানিরের পার্টির বিকৃত উচ্চারণ।

ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ট্রেন্ডিংয়ে চলে এসেছে ভিডিওটি। তা নিয়ে সঙ্গীত শিল্পী যশরাজ মুখাটে বানিয়ে ফেলেছেন একটি ম্যাশ-আপ গানও। অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন থেকে অভিনেতা শাহিদ কপূরের মতো তারকারাও গলা মিলিয়েছেন সেই গানে। এবার সেই ট্রেন্ডে গা ভাসাল দিল্লি পুলিশও।

সম্প্রতি শহরের এক হুক্কা বার কাম রেস্তোঁরােতে তল্লাশি চালিয়েছিলেন দিল্লি পুলিশ। তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় সে ছবি পোস্ট করেন তাঁরা। ক্যাপশনে লেখা, ‘ইয়ে হাম হ্যায় .. ইয়ে হুক্কা হ্যায়.. আওর আব পাউরি নেহি হো রাহি হ্যায়’ (এটা আমরা, এগুলি হুক্কা এবং এখন কোনও পার্টি হচ্ছে না)। দিল্লির রাজৌরি গার্ডেনে অবস্থিত সেই রেস্তোঁরা বারটি ইতিমধ্যেই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেখান থেকে মোট ২৪ টি হুকা বাজেয়াপ্ত করে পুলিশের আরও সতর্কবাণী, “কিছু পার্টি কেবল স্বাস্থ্যের পক্ষেই ক্ষতিকারক নয়, সেগুলি অবৈধও।”

নেটমাধ্যমে ইতিমধ্যেই বেশ ভাইরাল হয়ে উঠেছে সেই ছবি। দিল্লি পুলিশের রসিকতায় মজায় মেতেছেন নেটিজেনরাও। পুলিশের এই কাজের বিশেষ প্রশংসাও করেছেন তাঁরা। সেই সঙ্গে সতর্কবাণীটির দিকেও নজর দিয়েছেন সকলে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.