কমিশনের লক্ষ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতানো! বিস্ফোরক অভিযোগ দিলীপের

কমিশনের লক্ষ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতানো! বিস্ফোরক অভিযোগ দিলীপের
কমিশনের লক্ষ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতানো! বিস্ফোরক অভিযোগ দিলীপের

ভবানীপুর উপ নির্বাচন মিটতেই ফের প্রকাশ্যে এলো বিজেপি দলীয় কোন্দল।দলের নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, অবাঙালি প্রার্থী নিয়ে দলের মধ্যেই অসন্তোষ। এই অবাঙালি প্রার্থীর জন্য মমতাই জিতবেন ৫০ হাজারের বেশি ভোটে। আর এই প্রসঙ্গেই পাল্টা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন সকালে দিলীপ ঘোষ বলেন, “ঘরে বসে কে কি বলল তাতে কিছু যায় আসে না। প্রিয়াঙ্কার মত প্রার্থী ছিল বলেই ভবানীপুরে লড়াই হয়েছে। ঘরে বসে অনেকেই অনেক কথা বলতে পারে। যারা মাঠে নেমে লড়াই করেছেন তাঁরা জানেন বিজেপি জিতবে”

কল্যাণ চৌবের গাড়ি ভাঙচুর হয়েছে। কিন্তু তৃণমূল বলছে উনি তো উল্টোডাঙার লোক, ভবানীপুর কি করছিলেন? সেই নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, “ওনাদের মন্ত্রীরা যখন গেছে তখন কিছু হয়নি এদিকে আমাদের নেতারা গেলে তাদের গাড়ি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। শেষ ব্যক্তির গাড়ি ভেঙ্গে দেওয়া আছে সেখানে দাঁড়িয়ে পুলিশের দেখা উচিত ছিল বিষয়টি। ওনাদের নেতা মন্ত্রীরা বলছেন এটা কোন রাজনৈতিক বিষয় নয়।”

বিজেপি প্রার্থী ভোট চলাকালীন বুথ জ্যাম, ছাপ্পা ভোট সহ একাধিক অভিযোগ করেছিলেন কমিশনে। কিন্তু কমিশন সব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেছে। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, “কমিশন মমতা ব্যানার্জিকে ভোটে জেতার জন্য নির্বাচন করে তাহলে স্বাভাবিকভাবেই অন্য কোনো অভিযোগ নেবে না। আমার ওপর, অর্জুন সিং এর উপর আক্রমণ করা হয়েছে। কিন্তু তাদের উপর কোন কেস হলো না লোক দেখানোর জন্য চারজনকে ধরে নিয়ে গিয়ে পড়ে ছেড়ে দেওয়া হল”।

তাঁর আরও অভিযোগ, “কোথাও কোনও নিরাপত্তা রক্ষী নেই, পুলিশ নেই। গায়ের জোরে ধমকানো হচ্ছে। কমিশনের লক্ষ্য ছিল মমতা ব্যানার্জিকে জেতানো এবং বিজেপিকে আটকানো। সেটাই হয়েছে”।