নদীর পাড়ে পড়ে থাকা আধপোড়া দেহ খুবলে খাচ্ছে কুকুর! মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী রইল উত্তরাখণ্ড

নদীর পাড়ে পড়ে থাকা আধপোড়া দেহ খুবলে খাচ্ছে কুকুর! মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী রইল উত্তরাখণ্ড
নদীর পাড়ে পড়ে থাকা আধপোড়া দেহ খুবলে খাচ্ছে কুকুর! মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী রইল উত্তরাখণ্ড

দিন কয়েক আগেই খবরে উঠে এসেছিল উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে নদীর জলে একাধিক মৃতদেহ ভেসে যাওয়ার দৃশ্য। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের আরেক এলাকায় করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ ব্রিজ থেকে নদীতে ছুঁড়ে ফেলার ভিডিও-ও প্রকাশ্যে এসেছে। এবার সামনে এল আরও ভয়ানক এক ঘটনার ছবি। নদীর পাড়ে পড়ে রয়েছে আধপোড়া সব মৃতদেহ। আর তাই ছিঁড়ে খাচ্ছে কুকুর৷ সম্প্রতি এমনই ঘটনারই সম্মুখীন হল উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দারা।

জানা গিয়েছে, উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশিতে ভাগীরথীর নদীর কেদার ঘাটের পাড়ে দেখা গিয়েছে এমন মর্মান্তিক চিত্র। স্থানীয় বাসিন্দাদের মতে, বেশ কিছুদিন ধরেই দেখা যাচ্ছে এই ভয়ানক দৃশ্য। তাঁদের আশঙ্কা এই মৃতদেহগুলি করোনা আক্রান্তদের। মারা যাওয়ার পর হয়তো আধপোড়া দেহগুলি নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু গত কয়েকদিন হওয়া বৃষ্টির ফলে নদীতে জলস্তর বেড়ে যাওয়ায়, দেহগুলি ভেসে পাড়ে উঠে আসে৷ আর তা-ই খুবলে খাচ্ছে রাস্তার কুকুরগুলি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের এও দাবী, দৃশ্যটি যেন অমানবিকতার নিষ্ঠুর এক নিদর্শন! এই দৃশ্য চোখে দেখা যায় না। তাই প্রশাসনের কাছে তাঁদের একান্ত অনুরোধ, যেন দ্রুত মৃতদেহগুলি সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর সেগুলির সম্মানজনকভাবে সৎকার করা হয়। অনেকে আবার এও আশঙ্কা করেছেন, এগুলি করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃতদেহ। তাই এভাবে পড়ে থাকলে সংক্রমণের সম্ভাবনাও বাড়বে। তাই যথাসম্ভব দেহগুলির উপযুক্ত ব্যবস্থা করা উচিৎ।

যদিও ইতিমধ্যেই স্থানীয় মিউনিসিপ্যালিটির পক্ষ থেকে নদীর ওই ঘাটে লোক নিযুক্ত করা হয়েছে। নদীর পাড়ে এরকম কোনও মৃতদেহের খোঁজ পাওয়া গেলেই যাতে সেগুলির উপযুক্ত ভাবে সৎকার করা হয়, সেই নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। এই প্রসঙ্গে মিউনিসিপ্যালিটির প্রেসিডেন্ট রমেশ সেমওয়ালের বক্তব্য, ওই এলাকায় গত কয়েকদিন ধরেই করোনায় মৃত্যুর হার বেশ বেড়ে গিয়েছে। তবে খবর পাওয়া মাত্রই লোক নিযুক্ত করেছে মিউনিসিপ্যালিটি। বেশ কিছু মৃতদেহ উদ্ধারও করা হয়েছে। এছাড়াও নজর রাখা হচ্ছে যাতে প্রয়োজনীয় নিয়মনীতি মেনে মৃতদেহগুলির সৎকার কাজ করা হয়।