যাত্রীর অভাব! ১৪ টি প্যাসেঞ্জার ও দূরপাল্লার ট্রেন বাতিলের সিদ্ধান্ত পূর্ব রেলের! দেখে নিন তালিকা

যাত্রীর অভাব! ১৪ টি প্যাসেঞ্জার ও দূরপাল্লার ট্রেন বাতিলের সিদ্ধান্ত পূর্ব রেলের! দেখে নিন তালিকা
যাত্রীর অভাব! ১৪ টি প্যাসেঞ্জার ও দূরপাল্লার ট্রেন বাতিলের সিদ্ধান্ত পূর্ব রেলের! দেখে নিন তালিকা

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজ্যে লাগামছাড়া করোনা সংক্রমণ। প্রতিদিন বাড়ছে করোনার দৈনিক সংক্রমণ। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। আর সেই কারণে যতোটা সম্ভব গণপরিবহণ এড়াতে শুরু করেছেন অনেকেই। তাছাড়া খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া, দূরে ভ্রমণের ব্যাপারেও এই সময় না যাওয়ার সিদ্ধান্তই নিচ্ছেন অনেকে।

এই পরিস্থিতিতে এবার একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন বন্ধ বা বাতিল রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ব রেল। সূত্রের খবর, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার জেরে, যাত্রী সংখ্যা অনেকটাই কমে গেছে ইদানিং। সেই কারণেই মোট ১৪ টি প্যাসেঞ্জার এবং দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রেলের পক্ষ থেকে এও জানানো হয়েছে যে, যতক্ষণ না পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে, ততোক্ষণ এই ১৪ টি ট্রেন চলাচল বন্ধই রাখা হবে। এবার জেনে নেওয়া যাক, কোন কোন ট্রেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ব রেল।

পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে যে যে ট্রেনগুলি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেগুলি হল- হাওড়া-বোলপুর (শান্তিনিকেতন) স্পেশাল, বোলপুর (শান্তিনিকেতন)-হাওড়া স্পেশাল, শিয়ালদহ-আসানসোল স্পেশাল, আসানসোল-শিয়ালদহ স্পেশাল, হাওড়া-সিউরি স্পেশাল, সিউরি-হাওড়া স্পেশাল, ভাগলপুর-মুজফফরপুর স্পেশাল, মুজফফরপুর-ভাগলপুর স্পেশাল, নবদ্বীপধাম-মালদা স্পেশাল, মালদা-নবদ্বীপধাম, দিঘা-আসানসোল স্পেশাল, আসানসোল-দিঘা স্পেশাল, আসানসোল-টাটা স্পেশাল, টাটা-আসানসোল স্পেশাল,

রেলের পক্ষ থেকে যতো দ্রুত সম্ভব এই নির্দেশ কার্যকর করতেও বলা হয়েছে। পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক এতগুলি ট্রেন বাতিলের প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, যে সমস্ত দূরপাল্লা এবং প্যাসেঞ্জার ট্রেন বাতিল করা হয়েছে, সেইসব ট্রেনগুলিতে যথেষ্ট পরিমাণে যাত্রী হচ্ছিল না। আর সেই কারণেই এই ট্রেনগুলি বর্তমান করোনা পরিস্থিতি ঠিক না হওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে, ওই সমস্ত ট্রেনগুলি বাতিল হলেও, ওই নির্দিষ্ট রুটে অন্যান্য যেসব ট্রেন রয়েছে, সেগুলি চালু থাকবে, যাতে যাত্রীরা তাঁদের গন্তব্যে যেতে পারেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.