প্রথম দফার নির্বাচনের আগেই কেন কমিশনের ফের তলব রাজ্য প্রশাসনকে?

প্রথম দফার নির্বাচনের আগেই কেন কমিশনের ফের তলব রাজ্য প্রশাসনকে?
প্রথম দফার নির্বাচনের আগেই কেন কমিশনের ফের তলব রাজ্য প্রশাসনকে?

২৭মার্চ প্রথম দফা নির্বাচনের আগেই ফের বৈঠক ডাকলো জাতীয় নির্বাচন কমিশন। ২৫ মার্চ ভার্চুয়ালি এ বৈঠক হবে। বৈঠকে কমিশনের ফুলবেনট ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন মুখ্য সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি।

কমিশন সূত্রে খবর, ওই জিনের বৈঠকের মূলত শান্তিপূর্ণ ভোট করানো নিয়ে আলোচনা হতে পারে। পাশাপাশি রাজ্য শান্তিপূর্ণ ভোট করানোর জন্য রাজ্য প্রশাসন কি কি ব্যবস্থা নিয়েছে তাও চাওয়া হবে। এছাড়াও কিভাবে প্রতিটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং রাজ্য পুলিশ মোতায়েন করা হবে সে সমস্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

অন্যদিকে আগামীকাল সোমবার থেকেই কলকাতা এবং রাজ্য পুলিশ কর্মীদের বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে নির্বাচন কমিশন। কেন্দ্রীয় বাহিনী কলকাতা পুলিশ এবং রাজ্য পুলিশ কর্মীদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা দায়িত্বে থাকবেন পুলিশ পর্যবেক্ষক। এই প্রশিক্ষণ পর্বে রীতিমতো খাতায়-কলমে তাদের বোঝানো হবে নির্বাচনের দিন কোন পরিস্থিতিতে কিভাবে কাজ করতে হবে তা নিয়ে। এ প্রশিক্ষণ শিবিরে থানার ওসি এবং আইসি থেকে শুরু করে নিচের তলার কর্মীদের পদমর্যাদা অনুযায়ী প্রত্যেককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, প্রায় ৭৭৪ কম্পানি আধাসেনা আসবে প্রথম দফার নির্বাচনে। সে ক্ষেত্রে মোতায়েন হবে ৭৩ হাজার আধাসেনা। অন্যদিকে রাজ্য পুলিশ থাকবে প্রায় ১২ হাজার। এরমধ্যে ৮ হাজার ৯২৬ জন লাঠিধারী পুলিশ থাকবেন। ৫৪০জন সশস্ত্র পুলিশ থাকবেন। ১১২ জন থাকবেন ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার পুলিশ। এছাড়া ১,৪৭০ এএসআই পদমর্যাদার পুলিশ এবং ৩৬৭জন মহিলা কনস্টেবল থাকবেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.