শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

সব্যসাচীর সঙ্গে হাসিমুখে ঐন্দ্রিলা! ফের সক্রিয় অভিনেত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, চরম বিস্ময়ে অনুরাগীরা

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১০, ২০২৩, ০৩:৪১ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০২৩, ০৩:৪১ পিএম

সব্যসাচীর সঙ্গে হাসিমুখে ঐন্দ্রিলা! ফের সক্রিয় অভিনেত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, চরম বিস্ময়ে অনুরাগীরা
সব্যসাচীর সঙ্গে হাসিমুখে ঐন্দ্রিলা! ফের সক্রিয় অভিনেত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, চরম বিস্ময়ে অনুরাগীরা

দু-মাসও হয়নি মারণরোগ ক্যান্সার কেড়ে নিয়েছে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মাকে। এর মাঝেই ফের দুশ্চিন্তা ঘিরে ধরেছে অভিনেত্রীর পরিবারকে। ঐন্দ্রিলার মায়ের শরীরেও বাসা বেঁধেছে মারণরোগ। ১৪ বছর পর আবারও ক্যান্সার ফিরে এসেছে ঐন্দ্রিলার মা শিখা শর্মার শরীরে। তা নিয়ে ভীষণই উদ্বিগ্ন পরিবার থেকে প্রয়াত অভিনেত্রীর অনুরাগীরাও। এসবের মাঝেই এবার ফের সক্রিয় হল ঐন্দ্রিলার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। যা নিয়ে চরম বিস্ময়ে অনুরাগীরা।

দিন কয়েক আগেই প্রয়াত অভিনেত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কাউন্ট থেকে একটি ভিডিও শেয়ার হয়৷ যা দেখে হতবাক অনুরাগীরা। ভিডিওটি ছিল সব্যসাচীর জন্মদিনের৷ ক্যাপশনে লেখা, শুভ জন্মদিন আমার প্রিয় সব্য। ভিডিওতে ঐন্দ্রিলাকে হইহুল্লোড় করে সব্যসাচীর জন্মদিন উদযাপন করতে দেখা যাচ্ছে। তবে এই ভিডিও নিয়ে অনুরাগীদের মনে একাধিক প্রশ্ন উঠেছে৷ হঠাৎ করে প্রয়াত অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে এমন ভিডিও কেন?

এর উত্তর দিয়েছেন খোদ অভিনেত্রীর মা শিখা শর্মা। ভিডিওটি আসলে তিনিই শেয়ার করেছিলেন। আসলে মেয়েকে হারিয়ে তার স্মৃতিকে সঙ্গী করেই বেঁচে রয়েছেন মা। ঐন্দ্রিলা নিজেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় ছিল৷ প্রায়ই এটা ওটা পোস্ট করতেন। মা শিখা শর্মাও মেয়ের মৃত্যুর পর তাকে নিয়ে মাঝেমধ্যেই কিছু না কিছু পোষ্ট করতে থাকেন। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া থেকে মেয়েকে উদ্দেশ্য করে নানান স্মৃতিমেদুর বক্তব্য রাখেন তিনি।

এবার ঐন্দ্রিলার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকেই সব্যসাচীর জন্মদিনের পোস্ট করলেন অভিনেত্রীর মা। সংবাদ মাধ্যমে তিনি জানিয়েছেন, ঐন্দ্রিলা যাওয়ার পর থেকেই মেয়েকে যেন আরও আঁকড়ে ধরেছেন তিনি। মেয়ের পুরনো হাসিখুশি ভিডিও দেখলেই মন হুহু করে ওঠে শিখাদেবীর। এখন মেয়ের কথা খুব মনে পড়ছিল তাই সব্যর গত বছরের জন্মদিনের এই ভিডিও শেয়ার করেছিলেন। ঐন্দ্রিলার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টকে সক্রিয় রাখতেই এই কাজ করেছিলেন তিনি।

মাঝেমধ্যে শিখা দেবী অবশ্য অভিযোগও করেন, মৃত্যুর পর অনেকেই ভুলে গিয়েছে তাঁর মেয়েকে। শুধু তিনিই মা তো, তাই ব্যতিক্রম! কিছুতেই ভুলতে পারবেন না। বারবার অনুরোধ করলেও যে তাঁর মেয়ে আর ফিরে আসবে না, একথা মেনেও যেন মানতে চান না। তবে সব্যকে নিয়ে তাঁর অনেক উচ্চাশা।

উল্লেখ্য, শোক কাটিয়ে এবার সব্যসাচীও ফের প্রত্যাবর্তন করছেন ছোটপর্দায়। সাধক রামপ্রসাদ সেনের ভূমিকায় তাঁকে দেখা যেতে চলেছে। এত বড় ধাক্কা সামলে এবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরছেন তিনি। এটাই যেন অনেক বড় পাওয়া অনুরাগীদের কাছে। তাই সব্যসাচীকে অভিনয়ে ফিরতে দেখেই আনন্দে আত্মহারা তাঁর ভক্তরা।