বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

বাবিলের প্রথম সিরিজের কাজ সুসম্পন্ন! ছেলের সাফল্য দেখে যেতে পারলেন না ইরফান খান

চৈত্রী আদক

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২, ১২:০৬ পিএম | আপডেট: মে ১৩, ২০২২, ১২:০৬ পিএম

বাবিলের প্রথম সিরিজের কাজ সুসম্পন্ন! ছেলের সাফল্য দেখে যেতে পারলেন না ইরফান খান
বাবিলের প্রথম সিরিজের কাজ সুসম্পন্ন! ছেলের সাফল্য দেখে যেতে পারলেন না ইরফান খান

বংনিউজ২৪×৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ছোট থেকে বাবাই তাঁর জীবনের আইকন। এবার বাবাকে অনুসরণ করেই আরও একধাপ এগিয়ে গেলেন বাবিল খান। বলিউডে হাতে খড়ি আগেই হয়েছে। এবার সম্প্রতি প্রথম সিরিজের কাজ শেষ করলেন বাবিল। জানা গিয়েছে, তাঁর আসন্ন সিরিজের নাম ‘দ্য রেলওয়ে মেন’। পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন নবাগত শিব রাওয়াইল।

১৯৮৪ সালে ভোপালে ভয়াবহ গ্যাস দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন হাজার হাজার মানুষ। ৩৭ বছর আগের সেই ভয়াবহ রাত আজও দেশবাসীর স্মৃতিতে হানা দেয়। সেই মর্মান্তিক ঘটনা অবলম্বন করেই নির্মিত হয়েছে এই সিরিজটি। বাবিল ছাড়াও সিরিজটিতে অভিনয় করতে দেখা যাবে আর মাধবন, কেকে মেনন ও দিব্যেন্দু শর্মাকে।

যশ রাজ ফিল্মস প্রযোজনায় ‘দ্য রেলওয়ে ম্যান’-এর শ্যুটিং শুরু হয়েছিল গত বছর ডিসেম্বর মাসে। পাঁচ মাসের মাথায় সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে শুটিং পর্ব। ইতিমধ্যেই একটি র‍্যাপ আপ ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন বাবিল খান। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ‘দ্য রেলওয়ে ম্যান’ টিমের অধিকাংশ সদস্যই। প্রত্যেককে কেক কেটে শ্যুটিং সম্পন্ন হওয়ার শুভ মুহূর্ত উদযাপন করতে দেখা যায়। সকলের চোখে মুখে ফুটে ওঠে উন্মাদনা।

বাবিল অভিনীত ‘দ্য রেলওয়ে মেন’ ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাবে চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসেই। তবে কেবল সিরিজই নয়, বাবিল ইতিমধ্যেই সিনেমাতেও কাজ শুরু করেছেন। জানা গিয়েছে, ‘বুলবুল’-এর পরিচালক অন্নিতা দত্তর পরবর্তী ছবি ‘কালা’-তে অভিনয় করবেন তিনি। এর পাশাপাশি তাঁর হাতে রয়েছে আরও অনেক অফার।

সব কিছুর পরেও ভক্তদের একটাই আফসোস। ছেলের প্রথম সিরিজের কাজ দেখার সৌভাগ্য হলো না বাবা ইরফান খানের। এমনকি বাবার মৃত্যুর শোক আজও কাটিয়ে উঠতে পারেননি বাবিল। তাঁর জীবনে হিরো ছিল ইরফান খানই। বাবার থেকেই তিনি জীবনের যাবতীয় অনুপ্রেরণা পেতেন। আজ বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই বলিউডে অভিনয়ের পথ সম্প্রসারিত করছেন বাবিল।

গত মাসে ইরফানের মৃত্যুবার্ষিকীতে ইনস্টাগ্রামে মন খোলা একটি চিঠিতে মন উজার করে বাবা-ছেলের স্মৃতির আঁকিবুকি কেটেছিলেন বাবিল খান। বাবার সঙ্গে ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে জুড়ে দিয়েছিলেন সেই চিঠি। বাবার হাত ধরে সেবার নরওয়ের পথে পাড়ি দিয়েছিলেন বাবিল। আকাশে আলোর নাচন দেখার স্বপ্নে বিভোর হয়েছিলেন দু‍‍`জনে। উত্তরের মেরুপ্রভার সঙ্গে বাবার গায়ের পারফিউমের গন্ধ যেন মিলে মিশে একাকার হয়ে গিয়েছিল। সেই গন্ধ বাবিল আজও অনুভব করতে পারেন। সেই সবকিছুই স্মৃতির যাদুঘরে যত্ন করে সাজিয়ে রেখেছেন বাবিল।