প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের নজরদারিতে তদন্ত করবে সিট

প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের নজরদারিতে তদন্ত করবে সিট
প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের নজরদারিতে তদন্ত করবে সিট

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজ্যে ‘ভোট পরবর্তী হিংসা’ মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের গঠন করে দেওয়া বিশেষ তদন্তকারী দল সিটের প্রধান হলেন কলকাতা এবং বম্বে হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুর। এমনই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। উল্লেখ্য, এর আগে কলকাতা হাইকোর্টের পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ জানিয়েছিল, সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত কোনও বিচারপতির নজরদারিতে সিটের তদন্ত হবে৷ এ দিন সেই নির্দেশেই পরিবর্তন করে পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ৷

রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ ছিল, খুন, ধর্ষণ, ধর্ষণের চেষ্টার মতো গুরুতর অভিযোগের তদন্ত করবে সিবিআই। অন্যদিকে, অপেক্ষাকৃত কম গুরুতর অভিযোগের তদন্তে সিট গঠন করতে হবে রাজ্য সরকারকে।

এই তিন সদস্যের সিটের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কলকাতা পুলিস কমিশনার সৌমেন মিত্র, আইপিএস সুমনবালা সাহু ও রণবীর কুমারকে। এদিকে সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টে এক মামলাকারী জানিয়েছিলেন, আদালতের নির্দেশে সিবিআই তদন্ত করেছে। কিন্তু রাাজ্য সরকার সিট গঠন করতে পারেনি এখনও। এই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল। এরপরই সাত তাড়াতাড়ি সিট গঠন করে নবান্ন। শুধুমাত্র সিট গঠন করাই নয়, ভোট পরবর্তী হিংসা মামলার তদন্তে সহযোগিতা করার জন্য ১০ আইপিএস নিয়োগ করে রাজ্য সরকার। রাজ্যকে ভাগ করা হয়েছে পাঁচটি জোনে। প্রতিটি জোনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ২ জন আইপিএসকে।

হেড কোয়ার্টার- সোমা দাস (ডিআইজি, রেলওয়ে) এবং শুভঙ্কর ভট্টাচার্য (ডিসি, কলকাতা পুলিস)। নর্থ জোনের দায়িত্বে- ডিপি সিং (আইজি, নর্থ বেঙ্গল), প্রবীণ কুমার ত্রিপাঠী (ডিআইজি, মালদহ রেঞ্জ)। পশ্চিমাঞ্চল জোন- এর দায়িত্বে সঞ্জয় সিং (এডিজি, পশ্চিমাঞ্চল) এবং ভরতলাল মীনা (ডিআইজি, বর্ধমান রেঞ্জ)। এছাড়াও সাউথ জোনে সিদ্ধিনাথ গুপ্তা(এডিজি দক্ষিণবঙ্গ) এবং প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় (ডিআইজি, বারাসত রেঞ্জ)। আর কলকাতা জোনের দায়িত্বে তন্ময় রায়চৌধুরী (অতিরিক্ত পুলিস কমিশনার), নীলাঞ্জন বিশ্বাস(যুগ্ম পুলিস কমিশনার)।