বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট দেওয়ার আশ্বাস ভূয়ো অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারের! প্রতারককে প্রহার উত্তেজিত জনতার

০৬:০০ পিএম, আগস্ট ১, ২০২১

প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট দেওয়ার আশ্বাস ভূয়ো অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারের! প্রতারককে প্রহার উত্তেজিত জনতার

একদিকে যখন ভূয়ো সরকারি আধিকারিকের নামে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বহু আর তেমনই ধরাও পড়ছেন পুলিশের জালে, ঠিক তেমনই ভূয়ো অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপার সেজে প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ধরা পরলেন এক ব্যাক্তি।

ঘটনাটি ঘটেছে অশোকনগর থানার চার নম্বর এলাকায়, প্রতারিত মানুষদের অভিযোগ বাড়িতে প্রতিবন্ধী সদস্য থাকলেই ওই ব্যাক্তি পৌঁছে যেত তাঁদের বাড়িতে। প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট বানালেই তার থেকে প্রতিবন্ধী ভাতা পাওয়া যাবে এই কথা বলে সবার কাছে এক হাজার বা কারুর কাছ থেকে দু’হাজার টাকা করে নিত ওই ব্যাক্তি।

যারা প্রতারিত হয়েছেন তাদের বক্তব্য বারাসাত হাসপাতালের অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারের নাম করে ওই ব্যক্তি তাঁদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট এবং প্রতিবন্ধী ভাতা পাইয়ে দেবে এমন আশ্বাসও দেওয়া হয়। পরবর্তী সময় তাঁরা জানতে পারেন যে তাঁরা প্রতারিত হয়েছেন।

অশোকনগর হাবরা আমডাঙ্গা এলাকার বিভিন্ন জায়গা থেকে কয়েকশো মানুষের কাছ থেকে এই ভাবে টাকা নেওয়া হয়েছে বলে এমনটাই অভিযোগ। অভিযুক্ত আকাশ দাস তাঁর কুকীর্তির কথা স্বীকার করলেও তাঁর দাবি অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারের নাম করে তিনি টাকা নেন নি।

খবর জানাজানি হতেই অভিযুক্তের বাড়ির সামনে টাকা চাইতে ভিড় করেন প্রতারিতরা। পাশাপাশি আকাশকে সামনে পেয়ে উত্তম মাধ্যম দেয় উত্তেজিত প্রতারিতরা। অশোকনগর থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় আকাশ দাসকে। আকাশের বাবা সুভাস দাস জানান ছেলে হাবড়া বাসস্ট্যান্ডে কাজ করত বলে তিনি জানতেন।