ঝালমুড়ির মতো তৃণমূল থেকে লোক নিয়ে বিজেপি বাংলায় কিছু করতে পারবে না, দাবি ফিরহাদ হাকিমের

ঝালমুড়ির মতো তৃণমূল থেকে লোক নিয়ে বিজেপি বাংলায় কিছু করতে পারবে না, দাবি ফিরহাদ হাকিমের
ঝালমুড়ির মতো তৃণমূল থেকে লোক নিয়ে বিজেপি বাংলায় কিছু করতে পারবে না, দাবি ফিরহাদ হাকিমের

বিজেপিকে “পাইকারি দল” বলে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। শনিবার মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, একমাস পরে তৃণমূল পার্টি বলে কিছু থাকবে না। তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়বে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

তিনি আরো বলেন, তৃণমূল পার্টির অন্দরে ডিজাস্টার তৈরি হয়েছে। আর এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মিটিং হচ্ছে দলের অন্দরে। মুখ্যমন্ত্রী সবাইকে হাতে রেখেছেন। শুধু নিজের দলের লোকদের হাতে রাখতে পারেননি। এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ফিরহাদ হাকিম বলেন, দীলিপবাবু স্বপ্ন দেখছেন। এই স্বপ্ন কোনদিন পূরণ হবে না।

প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ত্যাগের পর থেকেই রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা তুঙ্গে। এখনো পর্যন্ত তৃণমূল ত্যাগ করেননি তিনি। যদিও খুব শীঘ্রই এই পদক্ষেপ নিতে চলেছেন এই হেভিওয়েট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব জানা যাচ্ছে এমনটাই। আর এই নিয়েই সুর চড়িয়েছেন বিরোধীরা। তৃণমূলের অস্তিত্ব সংকটে এমনটাই দাবি করেছেন বিরোধী দলের অধিকাংশ। এই বিরোধীদের জবাব দিয়ে ফিরহাদ বলেন, তৃণমূল সাধারণ মানুষের দল। মানুষের আন্দোলনের ফলে তৈরি হওয়া দল তৃণমূল। এই দলকে ভেঙে ফেলা যায় না। একইসঙ্গে বিজেপিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ঝালমুড়ির মতো তৃণমূল থেকে লোক নিয়ে বিজেপি বাংলায় কিছু করতে পারবে না। বিজেপির কোন নীতি আদর্শ নেই। এমনকি বিজেপিকে সাধারণ মানুষ ভরসা পর্যন্ত করে না। বাংলার মানুষ দাঙ্গার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। এখনো পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর তাদের ভরসা রয়েছে। তাই তৃণমূল বাংলায় ছিল আছে থাকবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.