ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত

ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত
ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিট্যাল ডেস্কঃ কলকাতাঃ করোনার জেরে গোটা দেশ সহ রাজ্যবাসি নাজেহাল হয়ে উঠেছিলেন। করোনা থেকে রেহায় পেতে প্রায় কয়েকমাস ঘরবন্দি অবস্থায় ছিলেন মানুষজন। বর্তমানে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে ওঠেছে। বর্তমানে করোনায় সুস্থতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে হ্রাস পেয়েছে মৃত্যুর সংখ্যা তবে এখনও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। আর এবার করোনা থেকে মুক্তি দিতে দেশ তথা রাজ্যেও এসে গেছে করোনা ভ্যাকসিন।

মঙ্গলবার কলকাতা শহরে এসে গেছে করোনা প্রতিষেধক। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, সকালে বিশেষ বিমানে করোনা ভ্যাকসিন পাঠানো হয়েছে কলকাতায়। তা রাখা হবে বাগবাজারে কেন্দ্রীয় মেডিক্যাল স্টোরে। আজই রাজ্যের জেলায় জেলায় হাসপাতালগুলিতে চলে যাবে এই ভ্যাকসিন। সোমবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে করোনা প্রতিষেধক নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকের হয়। রাজ্য প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই এই প্রতিষেধক দেওয়ার জন্য তৈরি হয়েছে পরিকল্পনা। কোথায় কত প্রতিষেধক যাবে, সব প্রস্তুতি তৈরি।

ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত
ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী মু্খ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে জানিয়েছেন, প্রথম পর্যায়ে যে তিন কোটি মানুষকে প্রতিষেধক দেওয়া হবে তা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। এই টাকা দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্যকর্মী, সাফাইকর্মী, দমকলকর্মী, বিপর্যয় মোকাবিলার কর্মীদের প্রথম এই প্রতিষেধক ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তবে কোনও রাজনৈতিক নেতা বা মন্ত্রী-বিধায়কদের এই করোনা প্রতিষেধক কোনওভাবেই প্রথম পর্যায়ে দেওয়া হবে না বলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত
ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে কোভিশিল্ড এলো কলকাতায়, রইলো বিস্তারিত

আগামী শনিবার থেকে এই প্রতিষেধক দেওয়া শুরু হবে রাজ্যে। যদিও এই ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই সেরাম থেকে ১০ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজের জন্য অর্ডার দিয়েছে কেন্দ্র। কাল থেকে সেই ভ্যাকসিনই বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে যাবে। কোভিশিল্ডের প্রতি ডোজ এর দাম ধার্য হয়েছে ২০০ টাকা। অন্যদিকে সরকারকে ১.১ কোটি ডোজ দেবে সেরাম। প্রথম ১০ কোটি ডোজের দাম ২০০ টাকা করে থাকবে বলে জানা গেছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.