মাধ্যমিক পাশেই পেতে পারেন রেলে কাজ করার সুযোগ! কীভাবে আবেদন করবেন? রইল পদ্ধতি

মাধ্যমিক পাশেই পেতে পারেন রেলে কাজ করার সুযোগ! কীভাবে আবেদন করবেন? রইল পদ্ধতি
মাধ্যমিক পাশেই পেতে পারেন রেলে কাজ করার সুযোগ! কীভাবে আবেদন করবেন? রইল পদ্ধতি

আপনি কি রেলে কাজ করতে ইচ্ছুক? অ্যাপ্রেন্টিস করতে চান? মাধ্যমিক উত্তীর্ণ আপনি? তাহলে রয়েছে সুখবর! বিভিন্ন ট্রেডে রেলে রয়েছে আপ্রেন্টিসের সুযোগ! শূন্যপদের সংখ্যাও বিপুল।
কীভাবে করবেন আবেদন? শূন্যপদের সংখ্যাই বা কত? শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং বয়সসীমা কত? জেনে নিন আবেদনের বিস্তারিত পদ্ধতি…

মাধ্যমিক পাশেই পেতে পারেন রেলে কাজ করার সুযোগ! কীভাবে আবেদন করবেন? রইল পদ্ধতি
মাধ্যমিক পাশেই পেতে পারেন রেলে কাজ করার সুযোগ! কীভাবে আবেদন করবেন? রইল পদ্ধতি

শূন্যপদ ও ট্রেডঃ
শূন্যপদের সংখ্যা মোট ৩৯৫১।
ফিটার, ওয়েল্ডার (G & E), মেশিনিস্ট, কারপেন্টার, পেইন্টার, মেক্যানিক, প্রোগ্রামিং ও সিস্টেমস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অ্যাসিস্ট্যান্ট, ইলেকট্রিশিয়ান, ইলেকট্রনিক্স মেকানিক, ওয়ারম্যান, রেফিজ্রারেটর ও এসি মেকানিক, পাইপ ফিটার, প্লাম্বার, ড্রাফটসম্যান ও স্টেনোগ্রাফার ইত্যাদি পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

স্টাইপেনঃ
অ্যাপ্রেন্টিস করার সময় স্টাইপেন হিসেবে ৪০০০ থেকে ৮০০০ টাকা মিলবে।

বয়সসীমাঃ
২৪.০৬. ২০২১ তারিখে আবেদনকারীর বয়স হতে হবে ১৫ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে।

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ
আবেদনকারীকে দশম অথবা দ্বাদশ শ্রেণি উত্তীর্ণ হতে হবে। নির্দিষ্ট ট্রেডে এনসিভিটি অথবা এসসিভিটি সার্টিফিকেট থাকা আবশ্যক। তবে যারা এখনও এসএসসি অথবা আইটিআইয়ের মূল রেজাল্ট হাতে পাননি, তাঁরা আবেদন করতে পারবেন না।

আবেদন ফিঃ
আবেদন করতে হবে অনলাইন। সাধারণ প্রার্থীদের এর জন্য অনলাইনে ১০০ টাকা জমা দিতে হবে। তফসিলি জাতি, উপজাতি ও ওসিবিদের ক্ষেত্রে আবেদনের ফি লাগবে না।

আবেদনের তারিখ ও পদ্ধতিঃ
আবেদনের তারিখ ২৪ মে থেকে ২৫ জুন পর্যন্ত।

আবেদন করার জন্য রেলের ওয়েবসাইট https://www.rrc-wr.com-এ গিয়ে আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করা হয়ে গেলে একটি রেজিস্ট্রেশন স্লিপ পাওয়া যাবে। সেটি কাছে রেখে দেবেন। পরবর্তীতে কাজে লাগতে পারে।