উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে সানা, সঙ্গে আছেন ডোনাও! কলকাতায় একা লাগছে, জানালেন সৌরভ

উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে সানা, সঙ্গে আছেন ডোনাও! কলকাতায় একা লাগছে, জানালেন সৌরভ
উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে সানা, সঙ্গে আছেন ডোনাও! কলকাতায় একা লাগছে, জানালেন সৌরভ

উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাড়ি দিয়েছেন সৌরভ কন্যা সানা গাঙ্গুলি। লন্ডনের গ্লোবাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন তিনি। আপাতত লন্ডনেই থাকছেন তিনি৷ সঙ্গে থাকছেন সানার মা তথা সৌরভ পত্নী ডোনা গাঙ্গুলি। এদিকে নিজের কাছের দুই মানুষকে ছেড়ে কলকাতায় তিনি বড় একা! সম্প্রতি দাদাগিরির মঞ্চে এমনটাই জানালেন শো-এর সঞ্চালক তথা প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি।

দাদাগিরি মঞ্চে প্রত্যেক উইকএন্ডেই টেলিভিশনের একাধিক ধারাবাহিকের তারকারা হাজির হতে দেখা যায়। তাঁদের সঙ্গে হাসি মজা ঠাট্টা ও খেলা নিয়ে বেশ জমে ওঠে শো। সেলিব্রিটি প্রতিযোগীরা সৌরভকে প্রায়ই তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রশ্ন করে থাকেন। দাদাও নিজের মতো করেই সে সব প্রশ্নের উত্তর দেন। সম্প্রতি দাদাগিরিতে হাজির ছিলেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র। তাঁর সঙ্গে কথা প্রসঙ্গেই সৌরভ জানালেন, বাড়িতে মেয়ে-বউ না থাকায় মাঝেমধ্যেই তাঁর একা লাগে।

আসলে, অর্থনীতি নিয়ে পড়াশোনা করার জন্য লন্ডনের গ্লোবাল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হয়েছেন সানা। মেয়ের এই সফরে পাশে ছিলেন সৌরভ এবং স্ত্রী ডোনাও। তবে ভর্তি প্রক্রিয়ার পরই দেশে ফিরে এসেছেন মহারাজ। যদিও সানার সঙ্গে লন্ডনেই থেকে গিয়েছেন ডোনা। এই প্রসঙ্গেই এবার সৌরভ মুখ খুললেন। জানালেন, “আমি একটা ১৯ বছরের মেয়েকে সেন্ট্রাল লন্ডনে একা ছাড়তে পারিনি। আমার স্ত্রীও ওর সঙ্গে থাকে। কারণ ওখানে কোনও কলেজেই ক্যাম্পাসের মধ্যে হোস্টেল নেই। ওরা আমাদের লন্ডনের বাড়িতেই থাকে। এখানে আমি খুব একা হয়ে গিয়েছি।”

পাশাপাশি সৌরভ এও স্বীকার করেন, মেয়েকে বাইরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া তাঁর পক্ষে খুবই কষ্টকর ছিল। কিন্তু পরে ভাবেন, তিনি নিজেও তো কতদিন বাবা-মাকে ছেড়ে ছিলেন। একটা বয়সের পর উন্নতির জন্য ছেলে-মেয়েকে তো ছাড়তেই হয়। সেই সব দিকে চিন্তা করেই মেয়েকে পড়াশোনার জন্য বিদেশে পাঠিয়েছেন সৌরভ। আর তাকে দেখভালের জন্য স্ত্রী ডোনাও সেখানেই থাকছেন। ফলে কলকাতায় দাদার নিজেকে প্রায়ই একা লাগে। এদিন দাদাগিরির মঞ্চে নিজেই সেই আবেগই প্রকাশ করে দিলেন মহারাজ।