অগ্নিকাণ্ডের পর সিমলিপালে প্রথম বৃষ্টি! খুশির নাচ কর্তব্যরত ফরেস্ট অফিসারের, দেখুন ভিডিও

অগ্নিকাণ্ডের পর সিমলিপালে প্রথম বৃষ্টি! খুশির নাচ কর্তব্যরত ফরেস্ট অফিসারের, দেখুন ভিডিও / Image Source- Screengrab from Twitter Video Posted By @ykmohanta
অগ্নিকাণ্ডের পর সিমলিপালে প্রথম বৃষ্টি! খুশির নাচ কর্তব্যরত ফরেস্ট অফিসারের, দেখুন ভিডিও / Image Source- Screengrab from Twitter Video Posted By @ykmohanta

প্রায় দু’সপ্তাহ আগে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয় এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম অভয়ারণ্য, সিমলিপাল ন্যাশনাল পার্ক। তবে এই দাবানলের আগুনকে আয়ত্তের মধ্যে আনা বা নেভানো, কোনোটাই সম্ভব হয়নি গত দুসপ্তাহেও। অবশেষে মিলল স্বস্তি। গতকাল, সিমলিপালের পিঠাবাটা অঞ্চলে নামে প্রবল শিলাবৃষ্টি। এই বৃষ্টিপাতের ফলেই আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা গিয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্য সরকার।

তবে চমক এখানেই শেষ নয়৷ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। সেখানে দেখা যাচ্ছে, প্রবল বৃষ্টির মধ্যেই সিমলিপালের অরণ্যে আনন্দে নাচানাচি করছেন এক মহিলা ফরেস্ট অফিসার। বৃষ্টির ছোঁয়ায় গাছগুলি ফের প্রাণ ফিরে পাচ্ছে। তা দেখেই ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনাও জানিয়েছেন সেই অফিসার। ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে, “বহুত জায়দা বরষা দে” অর্থাৎ আরও বৃষ্টি দাও! জানা গিয়েছে, মহিলা ফরেস্ট অফিসারটির নাম স্নেহা ধল৷ ঘটনাচক্রে, অরণ্যের অগ্নিকাণ্ডকে আয়ত্তে আনার পিছনে তাঁর বড়সড় ভূমিকা রয়েছে।

ভারতীয় বন পরিষেবা (আইএফএস)-এর কর্মকর্তা রমেশ পান্ডে টুইটারে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। তারপরই তা ভাইরাল হয়ে যায়। রমেশ ক্যাপশনে লেখেন, “এই বৃষ্টিপাত ঈশ্বরের দান। সিমলিপালে আগুন নেভানোর কাজে জড়িত ফরেস্ট অফিসারটির খুশি আঁচ করা যাচ্ছে। সুসংবাদ এই যে, আগুন এখন পুরোপুরি আয়ত্তের মধ্যে এসে গিয়েছে”। এখনও অবধি ১ লাখের বেশি মানুষ দেখে ফেলেছেন ভিডিওটি। লাইকের সংখ্যাও ৫০০০ ছাড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিমলিপাল ফরেস্ট রিজার্ভটি ২,৭৫০ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত। অগ্নিকাণ্ডের ফলে এখানে বন্য প্রাণীদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও প্রচুর ঔষধি গাছ পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। যদিও এখন আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। এই প্রসঙ্গে প্রধান বন সংরক্ষক (পিসিসিএফ) কার্যালয় জানিয়েছে, “রাজ্য সরকার কর্তৃক বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে, রাজ্যে চলমান বনের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। পরিস্থিতিও বেশ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। “

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.