জল্পনার অবসান! স্কুল শিক্ষকদের জন্য বড়সড় সিদ্ধান্তের আগাম ঘোষনা তৃণমূল শিক্ষক নেতার

Image source: Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ স্টাফ প্যাটার্ন নিয়ে বহু জল্পনার অবসান ঘটিয়ে এবার এক আগাম সুখবর শোনাল শাসক দলের শিক্ষক নেতা। শিক্ষক মহলের ক্ষোভ প্রশমিত করে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় স্টাফ প্যাটার্নের নির্দেশ একপ্রকার স্থগিত রাখার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্র।

শিক্ষা দপ্তরের তরফে স্টাফ প্যাটার্ন নিয়ে কোন বিজ্ঞপ্তি জারি না হলেও আজ সন্ধ্যে ৬.২২ মিনিটের দিকে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন অশোক রুদ্র। এই পোস্টে তিনি লেখেন, “শিক্ষা দপ্তরের সর্বোচ্চ পর্যায়ের আলোচনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আপাতত স্টাফ প্যাটার্ন কার্যকর করা হচ্ছেনা-আপার প্রাইমারি, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে।“ ইতিমধ্যেই অশোক রুদ্রর এই পোস্ট ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। একইসাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় কীভাবে শিক্ষা দপ্তরের এহেন সিদ্ধান্ত জানানো হয়, তা নিয়েই জোর জল্পনা শুরু হয়েছে শিক্ষা মহলে।

এই পোস্টকে ঘিরে হওয়া জল্পনার উত্তরে অশোক রুদ্র জানান, শিক্ষামন্ত্রীর কাছে শিক্ষকদের নানান সমস্যা তুলে ধরার পর আপাতত স্টাফ প্যাটার্ন স্থগিত রাখার বিষয়েই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কবে এই বিজ্ঞপ্তি শিক্ষা দপ্তরের তরফে জারি হবে? সাংবাদিকের এই প্রশ্নের উত্তরে আশোকবাবু সাফ জানিয়ে দেন, “আমি আর কিছু বলবনা। আপনি যদি একজন সাংবাদিক হন তাহলে আপনার জানা উচিৎ বিজ্ঞপ্তি শিক্ষা দপ্তরের তরফে জারি হবেই।“

কিন্তু অশোকবাবুর এই পোস্টের পর শিক্ষকমহলে তৈরি হয়েছে আরও বহু প্রশ্নচিহ্নের। অনেকের মতে কীভাবে শিক্ষা দপ্তরের সর্বোচ্চ পর্যায়ের আলোচনার সিদ্ধান্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়? কারও কথায় যদি স্টাফ প্যাটার্ন ‘স্থগিত’ রাখারই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তাহলে কেন তা সরকারি ভাবে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হলনা? তবে যতক্ষননা পর্যন্ত সরকারি ভাবে বিজ্ঞপ্তি জারি করে এই বিষয়টি জানানো হবে ততক্ষন পর্যন্ত এই প্রশ্নচিহ্ন কোনভাবেই মিটবেনা বলে দাবি অনেকের।

আরও পড়ুনঃ  ফের প্রশ্নের মুখে রেলের নিরাপত্তা, চলন্ত ট্রেনেই যাত্রীকে লুঠ

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.