যশ আতঙ্ক! জঙ্গল থেকে লোকালয়ে ভেসে এলো হরিণ

যশ আতঙ্ক! জঙ্গল থেকে লোকালয়ে ভেসে এলো হরিণ
যশ আতঙ্ক! জঙ্গল থেকে লোকালয়ে ভেসে এলো হরিণ

যশের দাপটে সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকা ভাসতে পারে বলে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল। এদিন সকালে নির্ধারিত সময়ের আগেই আছরে পড়ে ঘূর্ণিঝড় যশ। তার দাপটে ছারখার হয়ে যায় উপকূলবর্তী এলাকাগুলি। ভেসে গিয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। এবার গোসাবার পাখিরালয়ে জঙ্গলের হরিণ ভেসে এল।

প্রবল ঝড়ের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জঙ্গলের একাধিক বন্য প্রাণীও। পালিয়ে গিয়ে রক্ষা পেল না বনের হরিণ। প্রবল ঝড়ের দাপট তাকে টেনে নিয়ে আসলো গোসাবার লোকালয়ে। সাইক্লোনের অভিঘাতে জঙ্গলের হরিণ ভেসে আসল লোকালয়ে।

এবারের ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের মাধ্যমে প্রকৃতির রুদ্ররূপ প্রত্যক্ষ করল রাজ্যবাসী। প্লাবনের জেরে ভেসে আসার সঙ্গে সঙ্গেই হরিণটি নজরে আসে স্থানীয় বাসিন্দাদের।এরপরেই খবর পাঠানো হয় গোসাবা থানায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে শুরু থেকেই তৎপর ছিল গোসাবা থানার গোটা টিম। তাই সঙ্গে সঙ্গেই তৎপরতার সঙ্গে হরিণটিকে উদ্ধার করেন থানার অফিসাররা। এরপরউদ্ধার করে প্রাথমিক শুশ্রূষার পর হরিণটিকে তুলে দেওয়া হয় ফরেস্ট রেঞ্জার এর হাতে।

ভেসে আসার ফলে প্রথমদিকে ভীতসন্ত্রস্থ ছিল হরিণটি। কিন্তু পরের দিকে চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠে। আপাতত হরিণটি বনদপ্তরের কাছেই রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ফের বনে ছেড়ে দিয়ে আসা হবে হরিণটিকে।