বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

‘খেলা হবে দিবস’-এর পরিবর্তনের আর্জি রাজ্যপালের! টুইটে মুখ্যমন্ত্রীকে এই দাবি ধনখড়ের

১২:০৮ পিএম, আগস্ট ১১, ২০২১

‘খেলা হবে দিবস’-এর পরিবর্তনের আর্জি রাজ্যপালের! টুইটে মুখ্যমন্ত্রীকে এই দাবি ধনখড়ের

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ফের মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে টুইট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তবে, এবার কোনও আক্রমণ বা তরজা নয়, টুইটে ‘খেলা হবে দিবস’-এর পরিবর্তনের আর্জি জানালেন রাজ্যপাল। তিনি টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়য়ের কাছে এই দাবি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, এর আগে ১৬ আগস্ট ‘খেলা হবে দিবস’-এর ঘোষণা করায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হয় বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ ছিল, ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং’- এর অন্ধকার অধ্যায়কে মনে করিয়ে দেয় ওই দিন। আবার সেই দিনকেই ‘খেলা হবে দিবস’ ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আর সেই কারণেই টুইটে রাজ্যপাল লেখেন, ‘খেলা হবে দিবসের দিন বদল করা হোক। ১৯৪৬-এ দ্য গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস হয়েছিল। ওই একই দিনে খেলা হবে দিবস পালিত হলে, তা গণহত্যার সেই অন্ধকারময় দিনকে স্মরণ করাবে। দিনটি মহম্মদ আলি জিন্নার ডায়রেক্ট অ্যাকশন ডে-র কথাও মনে করাবে। এমনটাই মনে করেন সনাতন সংগঠনের প্রতিনিধিরা।’

https://twitter.com/jdhankhar1/status/1425252750997135360

মঙ্গলবার এই ‘খেলা হবে দিবস’-এর বিরোধিতা করে রাজ্যপালের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এরপরই ‘খেলা হবে দিবস’ বদলের আর্জি জানালেন রাজ্যপাল। উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে প্রচারে তৃণমূলের অন্যতম হাতিয়ার হয়ে উঠেছিল ‘খেলা হবে’ স্লোগান। একুশের ভোট প্রচারে গ্রাম থেকে শহরে, প্রতি ব্লকে ব্লকে তৃণমূল কংগ্রেসের এই স্লোগান ঝড় তুলেছিল। শুধু তাই নয়, নির্বাচনী সভা থেকেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার এই স্লোগান বলতেন।

এরপর একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পর, এই ‘খেলা হবে’ স্লোগানকেই দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয় তৃণমূল কংগ্রেস। আর তাই ১৬ আগস্ট এই দিবস পালনের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে, শুধু এ রাজ্যেই নয়, সামনেই রয়েছে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন। তার আগে রয়েছে ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন। আর ত্রিপুরায় তৃণমূলের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এই নির্বাচনকে টার্গেট করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই এবার বিপ্লব দেবের রাজ্য ত্রিপুরাতেও উদযাপিত হবে ‘খেলা হবে’ দিবস।

জানা গিয়েছে, ত্রিপুরার ৮টি জেলাতে পালিত হবে, এই কর্মসূচি। নেত্রীর ভাঙা পায়ে বশ্যতা স্বীকার করছে ফুটবল। একুশের ভোটের 'খেলা হবে' স্লোগানকে যেন সার্থক করেছিল সেই ছবি। ভোটপর্বে 'খেলা হবে' ধ্বনি দিয়ে ময়দানে নেমেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এবার তাই দিবস হিসেবে পালিত হবে।