বড় খবর, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে কমতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! জল্পনা তুঙ্গে

বড় খবর, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে কমতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! জল্পনা তুঙ্গে
বড় খবর, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে কমতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! জল্পনা তুঙ্গে / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশব্যাপী পেট্রল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে জেরবার সাধারণ মানুষ। জ্বালানীর এই ক্রমবর্ধমান মূল্যবৃদ্ধির জেরে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস এবং রান্নার গ্যাসের দামও ঊর্ধ্বমুখী। আর এই মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ক্রমাগত বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আবার সামনেই রয়েছে পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। তাই ক্রমাগত এই পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি প্রভাব ফেলতে পারে ভোটে, এমনটা মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। সেই কারণে জ্বালানী তেলের দাম কমানো নিয়ে ভাবনাচিন্তাও করছে কেন্দ্র সরকার, তেমনটাই সূত্রের খবর।

উল্লেখ্য, বিগত ৯ মাস ধরে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে জ্বালানী তেলের দাম। কয়েকটি রাজ্যে সেস কমালেও, দামে খুব একটা হেরফের হয়নি। এদিকে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, আয় ব্যাহত না করেই, সরকারের কাছে ৮ টাকা অন্তঃশুল্ক কমানোর সুযোগ রয়েছে। এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের মুখে, কয়েকদিনের মধ্যেই অন্তঃশুল্ক কমিয়ে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমাতে পারে কেন্দ্র। এপ্রিলের ১ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে অর্থবর্ষ ২০২১-২২। এদিকে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এপ্রিল মাসের ১ তারিখ বা তার আগে যদি অন্তঃশুল্ক প্রতি লিটারে সাড়ে ৮ টাকা করে কমে, তাহলে সরকার ২০২১-২২ অর্থবর্ষের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পারবে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের নভেম্বর মাস থেকে ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসের মধ্যে পেট্রোল ও ডিজেলে অন্তঃশুল্ক বাড়িয়েছিল কেন্দ্র। যদিও পরবর্তীকালে ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে ২ টাকা অন্তঃশুল্ক কমে। পরে আবারও ১.৫ টাকা অন্তঃশুল্ক কমে। কিন্তু ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ২ টাকা বাড়ায় কেন্দ্র সরকার। এরপর ২০ সালের মার্চ মাসে ফের বাড়ে ৩ টাকা প্রতি লিটারে। আবার একই সালে মে মাসে যথাক্রমে পেট্রোলে ১০ টাকা প্রতি লিটার ও ডিজেলে ১৩ টাকা প্রতি লিটার অন্তঃশুল্ক বাড়ায় কেন্দ্র সরকার।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.