ধেয়ে আসছে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টি! বড় আপডেট আবহাওয়া দপ্তরের

ধেয়ে আসছে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টি! বড় আপডেট আবহাওয়া দপ্তরের
ধেয়ে আসছে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টি! বড় আপডেট আবহাওয়া দপ্তরের / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ গত কয়েকদিন ধরেই রাজ্যে তাপমাত্রা ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে। তবে দুপুরের পর থেকে রাজ্যের বেশকয়েকটি জেলায় বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির দেখা মিলেছে। তার জেরে রাতের দিকে তাপমাত্রা হ্রাস পাচ্ছে। গতকালও বিকেলের পর রাজ্যের বেশকয়েকটি জেলায় বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি শুরু হয়। আজ ভোর পর্যন্ত বিভিন্ন জেলায় জারি ছিল বৃষ্টি।

এছাড়া আজও রাজ্য জুড়ে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘন্টায় রাজ্যের জেলায় জেলায় বৃদ্ধি পাবে বৃষ্টির পরিমাণ। দক্ষিণবঙ্গে নদিয়া, মুর্শিদাবাদ ও উত্তরবঙ্গের কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে আজ ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। উল্লেখ্য ইতিমধ্যেই কেরলে প্রবেশ করেছে বর্ষা। তবে কিছুটা দেরী করেই এবার রাজ্যে বর্ষা প্রবেশ করছে।

অন্যদিকে উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছে। আর তার জেরে আগামী ১১ই জুন থেকে ১৪ই জুন পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ প্রবল বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই জানিয়েছে মৌসম ভবন। জোয়ারের জলস্ফীতি সহ সমুদ্র উপকূলে ঢেউয়ের উচ্চতাও বৃদ্ধি পাবে বলে সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর। এমনকি মৎসজীবিদের সমুদ্রে যেতে নিষেধও করা হয়েছে।

উল্লেখ্য জানা যাচ্ছে এই নিম্নচাপের সাথেই রাজ্যে প্রবেশ করবে বর্ষা। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম। শুক্রবার কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, দুই ২৪ পরগনা সহ দুই মেদিনীপুর এ ভারী বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস রয়েছে। এছাড়া শনি ও রবিবার রাজ্যজুড়ে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে৷ আর এই টানা কদিনের বৃষ্টির কারণে ইতিমধ্যেই নবান্ন কলকাতার পৌর কমিশনার এবং রাজ্যের সব জেলাশাসকদের উদ্দেশ্যে গতকাল রাতেই প্রাকৃতিক দুর্যোগের মোকাবিলার জন্য সতর্কতা জারি করেছে।