নতুন ব্যবসা শুরু করছেন? নাম রেজিষ্ট্রেশন করতে জানেন না? জেনে নিন.

Image Source-Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ বাংলাদেশঃ বর্তমান দেশের অর্থনৈতিক অবস্থান যা তাতে কর্মসংস্থান যথেষ্ট চাপের। চাকরির বাজারে নেমেছে মন্দা। কিন্ত্য প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর আপনাকে রোজকার করতেই হবে। আর সেই রোজকারের একমাত্র পথ ব্যবসা। কিন্তু ব্যবসা শুরুর পর কোম্পানিতে নাম রেজিষ্ট্রেশন অনেকেরই জানা নেই। তাই দেরি না করে জেনে নিন কিভাবে কোম্পানি নাম রেজিষ্ট্রেশন করবেন —

প্রথমেই নিতে হবে আপনার পছন্দের কোম্পানীর নামের ছাড়পত্রঃ একটি কোম্পানী রেজিষ্ট্রেশনের এটি হলো প্রথম ধাপ। আপনি বা আপনার যে প্রতিষ্ঠানের রেজিষ্ট্রেশন করতে চান সেই প্রতিষ্ঠানের নামে আগে কোন প্রতিষ্ঠান রেজিষ্ট্রেশন হয়েছে কিনা তা খুজে দেখাই এ পর্যায়ের উদ্দেশ্য। যাতে কিনা একই নামে একাধিক প্রতিষ্ঠান রেজিষ্ট্রেশন না হয়। নামের ছাড়পত্র হলো কোম্পানী রেজিষ্ট্রেশন এর একটি অপরিহার্য ডকুমেন্ট।

নামের ছাড়পত্র নেয়ার জন্য যে সকল নিয়ম মেনে চলতে হবে তাহলোঃ

ক) প্রথমেই এই লিংক এ http://www.roc.gov.bd:7781 গিয়ে একটি আইডি খুলুন।

খ) নামের ছাড়পত্র চেয়ে একটি আবেদন করতে হবে।

গ) আবেদন পত্রটি রেজিষ্ট্রার জয়েন্টস্টক এর বরাবর করতে হবে।

ঘ) নামের ছাড়পত্রের জন্য নির্ধারিত ফি, নির্ধারিত ব্যাংক এ জমা রশিদ সাথে দিতে হবে।

ঙ) আপনার পছন্দের নামটি অন্য আগের যে কোন নামের সাথে মিলে যেতে তাই আগে থেকেই তিনটি নাম আবেদনপত্রে উল্লেখ করে দেওয়া ভাল।

চ) নামের ছাড়পত্রটি ১৮০দিন পর্যন্ত বহাল থাকবে এর মধ্যেই আপনাকে রেজিষ্ট্রেশন এর জন্য আবেদন ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ফি জমা দিতে হবে। অন্যথায় আপনার নামের ছাড়পত্রটি বাতিল হয়ে যাবে।

তথ্যসূত্রঃ গুগল।

আরও পড়ুনঃ  বাংলাদেশের হিন্দুদের বাঁচাতে ট্রাম্পের কাছে কাতর আর্তি, দেখুন ভিডিওটি

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.