IND vs NZ: ইডেনে বাজিমাৎ! কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ সিরিজ জয় রোহিতদের

IND vs NZ: ইডেনে বাজিমাৎ! কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ সিরিজ জয় রোহিতদের / Image Source : Instagram @indiancricketteam
IND vs NZ: ইডেনে বাজিমাৎ! কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ সিরিজ জয় রোহিতদের / Image Source : Instagram @indiancricketteam

সিরিজ আগেই চলে এসেছিল হাতের মুঠোয়৷ কলকাতায় শেষ ম্যাচ ছিল নেহাতই নিয়মরক্ষার। তাই শেষ ম্যাচে টসে জিতে শিশিরের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক (টি-২০) রোহিত শর্মা। কারণ, তিনি চেয়েছিলেন দলের ব্যাটিংয়ের গভীরতা পরীক্ষা করতে। আর সেই পরীক্ষায় দুর্দান্ত ভাবে উতরে গেল দল। নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে কার্যত ছেলেখেলা করে ৭৩ রানের বড় ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নিল রোহিত বাহিনী! ইডেনে কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজও পকেটে পুরল ভারত৷

ইডেন বরাবরই রোহিতের কাছে পয়া মাঠ। নিজের পছন্দের মাঠে এদিনও টস ভাগ্য হিটম্যানেরই পক্ষে। শিশির ফ্যাক্টর মাথায় রেখেও আগে ব্যাটের সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। প্রথম ইনিংসে আজ কেএল রাহুলের বদলে ভারত অধিনায়কের সঙ্গে ওপেনিং করতে নেমেছিলেন ঈশান কিষান। আর দু’জনের যুগলবন্দীতে প্রথম উইকেটেই পাওয়ার প্লের ওভারের মধ্যে উঠে এল ৬৯ রান। ৩১ বলে ঝোড়ো ৫৬ রানের ইনিংস খেললেন অধিনায়ক রোহিত। ভাঙলেন একাধিক রেকর্ডও। ২১ বলে ২৯ রান করলেন ঈশান।

যদিও এরপর দ্রুত আউট হয়ে যান সূর্য কুমার যাদব ও ঋষভ পন্থ। কিন্তু মিডল অর্ডারকে টানলেন দুই আইয়ার, ভেঙ্কটেশ ও শ্রেয়াস। ২০ বলে ২৫ রান করেন শ্রেয়াস। ভেঙ্কটেশের খাতায় ১৫ বলে ২০। শেষ দিকে ঝোড়ো ইনিংস খেলেন হর্ষল প্যাটেল ও দীপক চাহার। প্যাটেলের সংগ্রহ ১১ বলে ১৮ ও চাহার মাত্র ৮ বলে করেন অপরাজিত ২১ রান। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮৪ রান তুলে ফেলে টিম ইন্ডিয়া।

IND vs NZ: ইডেনে বাজিমাৎ! কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ সিরিজ জয় রোহিতদের / Image Source : Twitter @BCCI
IND vs NZ: ইডেনে বাজিমাৎ! কিউয়িদের হোয়াইট ওয়াশ করে ৩-০ সিরিজ জয় রোহিতদের / Image Source : Twitter @BCCI

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে বিধ্বংসী শুরু করেন কিউয়ি ওপেনার মার্টিন গাপ্টিল। তবে তিনি ছাড়া আর কোনও কিউয়ি ব্যাটারই আজ দাঁড়াতে পারেননি। ৩৬ বলে ৫১ রান করেন কিউয়ি ওপেনার। তাঁকে ফেরান যুজবেন্দ্র চাহাল৷ ভারতের হয়ে এদিন আগুনে বোলিং করেন অক্ষর প্যাটেল। ৩ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ৯ রান খরচ করে ৩ উইকেট তুলে নেন তিনি৷ ম্যাচের সেরাও তিনিই। হর্ষল প্যাটেল পান ২টি উইকেট। বাকি দীপক চাহারও একটি উইকেট তুলে নেন। এদিন বোলিংয়ে অভিষেক ঘটে ভেঙ্কটেশ আইয়ারের। তিনিও পান একটি উইকেট। তবে কোনও উইকেট পাননি ভুবনেশ্বর কুমার। তবে ভালো বোলিং করেন তিনিও। ভারতীয় বোলারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের দাপটে মাত্র ১১১ রানেই শেষ হয়ে যায় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। ভারত ম্যাচ জেতে ৭৩ রানে।

প্রসঙ্গত, ঘরের মাঠে প্রথম সিরিজ হিসেবে দুর্দান্ত শুরু করলেন অধিনায়ক রোহিত ও কোচ দ্রাবিড় জুটি। সদ্য শেষ হওয়া টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইট ওয়াশ মুখের কথা নয়! যদিও জিতেও নিজেদের পা মাটিতেই রাখতে বলছেন কোচ দ্রাবিড়। তাঁর কথায়, জয়টা দুর্দান্ত হলেও এখনও অনেক দূর যাওয়া বাকি। তবে কোচ যাই বলুন না কেন, এই নয়া জুটি ও তরুণ ব্রিগেডের হাত ধরেই আগামী টি-২০ বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখতে এখনই শুরু করে দিয়েছেন ভারতীয় সমর্থকরা।