কোভিড আক্রান্তদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে ‘নয়া দামন’-এর সুরে নাচ নার্সের! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

কোভিড আক্রান্তদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে 'নয়া দামন'-এর সুরে নাচ নার্সের! দেখুন ভাইরাল ভিডিও
কোভিড আক্রান্তদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে 'নয়া দামন'-এর সুরে নাচ নার্সের! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত গোটা দেশ। তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেলেও বেশ কিছু রাজ্যে বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। সক্রিয়ের সংখ্যাও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। মৃতের সংখ্যাও কম নয়। দেশ তথা রাজ্যের এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে খারাপ অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন হাসপাতালে ভর্তি আক্রান্তরা। দিনে দিনে কমছে তাঁদের মনের জোর। এক অজানা আতঙ্কে দিন কাটছে তাঁদের।

এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে যেন এক টুকরো বাঁচার রসদ খুঁজে চলেছেন সেই মানুষগুলি। আর এই সময়ই তাঁদের পাশে দাঁড়িয়ে মনোবল যুগিয়ে চলেছেন দেশের বিভিন্ন চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মী সহ একাধিক ফ্রন্টলাইন কর্মীরা। শুধুমাত্র চিকিৎসাই নয়, মানুষের একাকীত্ব দূর করে মনের জোর বাড়াতে সব সময়ই অভিনব সব মানবিক উদ্যোগ নিতে দেখা যাচ্ছে তাঁদের। সেরকমই আরেকটি মানবিকতার চিত্র দেখা গেল আসানসোলের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। হাসপাতালের নার্স ইন্দ্রাণী দত্ত পিপিই কিট পরেই সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া সিলেটি লোকগীতি ‘নয়া দামন’-এর সুরে নাচলেন।

ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সেই ভিডিও। সেখানেই দেখা যাচ্ছে, ‘নয়া দামন’ গানটির তালে তালে নৃত্য পরিবেশন করছেন ওই নার্স। তিনি নাচ শুরু করার পর তাঁর সঙ্গে তাল মিলিয়ে উৎসাহ দিলেন অসুস্থ রোগীরাও। যেন নতুন করে নতুন করে সুস্থ হয়ে ওঠার শক্তি ও উৎসাহ ফিরে পেয়েছেন তাঁরা। এভাবেই আক্রান্তদের মনে খুশির এক আলোড়ন তুলে দিলেন ইন্দ্রাণী৷ যদিও জানা গিয়েছে তিনি নাকি কোনওদিন নাচ শেখেননি। যদিও তাঁর নাচের মুদ্রা দেখে তা বোঝার উপায় নেই।

কোভিড আক্রান্তদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে 'নয়া দামন'-এর সুরে নাচ নার্সের! দেখুন ভাইরাল ভিডিও
কোভিড আক্রান্তদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে ‘নয়া দামন’-এর সুরে নাচ নার্সের! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

হঠাৎ কেন পিপিই কিট পরে নাচতে গেলেন তিনি? এই প্রশ্নের উত্তরে ইন্দ্রাণী জানিয়েছেন, করোনা রোগীদের মনোবল বাড়াতেই তাঁর এই উদ্যোগ। ওষুধপত্র বা চিকিৎসার পাশাপাশি রোগীদের যদি এভাবে মানসিকভাবে চাঙ্গা করা যায়, সেই চেষ্টাই তিনি করেছেন। তাঁর কথায়, কোভিড আক্রান্ত হলে একেই অসুস্থ শরীর। তার ওপর যেহেতু পরিবারের সঙ্গেও সেভাবে দেখা করার সুযোগ থাকে না, ফলে মানসিকভাবে প্রচণ্ড ভেঙে পড়েন রোগীরা৷ তাঁদের মনে কোভিড যুদ্ধে লড়াই করার শক্তি যোগাতেই ইন্দ্রাণীর এই নাচ।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও নার্সটির এই মানবিক উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। আসানসোল জেলা হাসপাতালের নার্সিং সুপার সুরভি মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “আমাদের হাসপাতালের নার্স নাচের মাধ্যমে রোগীদের মনোবল যোগাচ্ছে, এটা সত্যিই খুব আনন্দের বিষয়। ও যে এত ভালো নাচ করে তা জানা ছিল না। কোভিড রোগীরা মানসিক ভাবে যে কতটা নিঃসঙ্গ হয়ে পড়েন তা আগে সেভাবে অনেকেই ভাবেনি। নার্সটির নাচে কোভিড আক্রান্তদেরও মানসিক জোর বাড়ল। তাঁরা যদি আনন্দ পান এতে ক্ষতির কিছু তো নেই।”

অপরদিকে, নার্সটির নাচের এই ভিডিও এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতেও। ইন্দ্রাণীর প্রশংসায় ভরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি অসুস্থ মানুষগুলির দ্রুত আরোগ্য কামনা করতেও দেখা গিয়েছে নেটিজেনদের। তাঁর এই অভিনব প্রচেষ্টাকে কুর্নিশ জানাতেও ভোলেননি তাঁরা। অবশ্য এর আগেও দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে পিপিই কিট পরে নাচ বা গানের মাধ্যমে করোনা রোগীদের মনোবল বাড়াতে দেখা গিয়েছিল স্বাস্থ্যকর্মীদের। সেই ভিডিওগুলিও যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল নেটমাধ্যমে।