ভর্তির ফর্মে ছেলে, মেয়ের পাশাপাশি এবার রূপান্তরকারীদের স্বীকৃতি দিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

Image source: Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ অবশেষে স্বার্থক হল আলিয়ার লড়াই। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী এবার থেকে ভর্তির ফর্মে মহিলা-পুরুষ ছাড়াও ট্রান্সজেন্ডারদের জন্যও বিশেষ এক কলাম। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে এমনই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে আদালতের তরফে। তবে এখানেই শেষ নয়। এর পরেও রূপান্তরকামীদের জন্য আলাদা ভাবে সংরক্ষনের ব্যবস্থা করে বিশ্ববিদ্যালয় সেবিষয়েও হাইকোর্টের দারস্থ হয়েছেন আলিয়া। এর শুনানি হবে আগামী শুক্রবার।

সম্প্রতি রূপান্তরকামী হিসাবে পড়াশোনার অধিকার আদায়ের জন্যই লড়াইয়ে নেমেছিল আলিয়া শেখ। তাঁর জন্য আদালতে গিয়ে এবার কলকাতা বিশ্ববদ্যালয়কে হার মানালেন এই রূপান্তরকামী। জানা গিয়েছে, আলিয়া শেখ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি নিয়ে এমফিল করতে চেয়েছিলেন। তাঁর জন্য কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফর্ম তুলে তা পূরনও করেন। কিন্তু ফর্মের মধ্যে ছেলে/মেয়ে ছাড়া রূপান্তরকামীদের জন্য অন্য কোন প্রকার কলাম না থাকায় সেই ফর্ম জমা দিতে পারেননি আলিয়া। এরপরেই নিজের দাবি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন তিনি।

এর আগেও অনেকে এই একই দাবি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হলেও তাঁরা খালি হাতেই ফিরে এসেছে। কিন্তু এবার আলিয়া তাঁর লড়াইয়ের যোগ্য সম্মান পেয়েছেন। বুধবার ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফর্ম জমা দেওয়ার শেষ দিন। আদলতের রায় আনুযায়ী ছেলে, মেয়ে ছাড়াও একজন রূপান্তরকামী হিসাবে এমফিলের ফর্ম পূরন করে তা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে সময় মত জমা দিতে পারায় বেশ খুশি আলিয়া।

যদিও তাঁর লড়াই এখানেই শেষ নয়। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুসারে সমস্ত রূপান্তরকামীদের ওবিসি আওতাভুক্ত করতে হবে। আগামী দিনে আদালতের এই নির্দেশ মেনে যদি রূপান্তরকামীদের জন্য এই বিশেষ সংরক্ষনের ব্যবস্থা করে বিশ্ববিদ্যালয় তাহলে কিছুটা হলেও সমাজের সঙ্গে তাঁদের লড়াই কমবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ  নৌকাডুবিতে মৃত ১২ ভোপালে, ৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের প্রতিশ্রুতি সরকারের

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.