মর্মান্তিক দৃশ্য! ৩ দিন ধরে মৃত ছেলের পাশে শুয়ে অসুস্থ মা, অবশেষে দরজা ভেঙে উদ্ধার পুলিশের

মর্মান্তিক দৃশ্য! ৩ দিন ধরে মৃত ছেলের পাশে শুয়ে অসুস্থ মা, অবশেষে দরজা ভেঙে উদ্ধার পুলিশের / প্রতীকী ছবি
মর্মান্তিক দৃশ্য! ৩ দিন ধরে মৃত ছেলের পাশে শুয়ে অসুস্থ মা, অবশেষে দরজা ভেঙে উদ্ধার পুলিশের / প্রতীকী ছবি

ঘরে মৃত ছেলে৷ অথচ তা দেখে কিছু করতে পারলেন না বৃদ্ধা মা। কারণ তিনি নিজেও অসুস্থ। ছেলের মৃতদেহের পাশেই শুয়ে কাটিয়ে দিলেন তিনটে দিন। অবশেষে প্রতিবেশীদের তৎপরতায় দরজা ভেঙ্গে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করল পুলিশ৷ মর্মান্তিক এই দৃশ্য দেখা গেল কোচবিহারের কোতয়ালি থানা এলাকায়৷ যা নিয়ে এলাকা জুড়ে এখন চাঞ্চল্য।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ওই ব্যক্তির নাম বিশ্বজিৎ আচার্য (৪৮)। পৌরসভার অস্থায়ী পাম্প অপারেটর হিসেবে কাজ করতেন তিনি। বর্তমানে পরিবার বলতে সঙ্গে থাকতেন ৯৫ বছরের বৃদ্ধা মা। তাঁকে নিয়ে ওই এলাকায় একটি বাড়িতে দীর্ঘদিন থাকতেন তিনি। দিন তিনেক আগে শেষবার বাড়ির বাইরে দেখা গিয়েছিল বিশ্বজিৎকে। তারপর থেকে আর দেখা যায়নি।

শনিবার দুপুরে বিশ্বজিতের জামাই ওই বাড়িতে আসেন। তিনি এসে ডাকাডাকি করলেও কোনও সাড়া পাননি৷ তখনই প্রতিবেশীদের ডেকে পুলিশে খবর দেন তিনি। এরপর পুলিশ এসে ঘরের দরজা ভাঙে। ভেতরে ঢুকলে পাওয়া যায় দুর্গন্ধ। দেখা যায় বিছানার উপর পড়ে রয়েছে বিশ্বজিৎ আচার্যর মৃতদেহ। পাশে শুয়ে তাঁর অসুস্থ বৃদ্ধা মা।

এরপরই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ মৃতদেহটিও উদ্ধার করে পুলিশ। সেটিকে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। তবে কীভাবে মৃত্যু হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজিতের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার পূর্ণ তদন্ত চলছে।