বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

যুক্তিযুক্ত কারণ ছাড়াই বাংলার ট্যাবলো বাদ! সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা আর্জি জানিয়ে মোদীকে চিঠি মমতার

০৬:৪৯ পিএম, জানুয়ারি ১৬, ২০২২

যুক্তিযুক্ত কারণ ছাড়াই বাংলার ট্যাবলো বাদ! সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা আর্জি জানিয়ে মোদীকে চিঠি মমতার

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে স্থান হয়নি বাংলার ট্যাবলোর। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু-সহ একাধিক স্বাধীনতা সংগ্রামী ও তাঁদের সংগ্রামকে থিম করে বানানো ট্যাবলো বাতিল করেছে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদীর সরকার। এবার কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার আর্জি জানিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই তিনি প্রধানমন্ত্রীকে এই বিষয়ে চিঠিও দিয়েছেন।

উক্ত চিঠিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘কোনও কারণ ছাড়াই কেন্দ্রীয় সরকার বাংলার ট্যাবলো বাতিল করেছে। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে আমি অত্যন্ত ব্যথিত। শুধু আমি নই, রাজ্যের সকল বাসিন্দাই মর্মাহত। যে বাংলা স্বাধীনতা সংগ্রামে সবচেয়ে বড় আত্মত্যাগ করেছে, তাঁদের ট্যাবলো এভাবে বাতিল করায় শোকাহত সকলে।’ এই ঘটনা বাংলার মানুষের আবেগে ধাক্কা দিয়েছে বলে চিঠিতে দাবি মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের। এর পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন যে, সাধারণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে তৈরি বাংলার ট্যাবলোর মূল থিম ছিল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু-সহ রাজ্যের অন্যান্য স্বাধীনতা সংগ্রামীদের কথা তুলে ধরা। উল্লেখ্য, দেশব্যাপী আজাদি কি অমৃত মহোৎসব পালিত হচ্ছে, সেই সময় কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না বলেও উল্লেখ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই কেন্দ্রের বাংলার ট্যাবলো বাতিলের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আর্জি  জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, প্রজাতন্ত্র দিবসের দিল্লির প্য়ারেডে থেকে ‘নেতাজি’ এবং ‘আজাদ হিন্দ ফৌজ’ থিমের বাংলার ট্যাবলো বাতিল করাকে ঘিরে শনিবার থেকেই কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত চরমে। নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে দ্বিচারিতার অভিযোগে সরব তৃণমূল কংগ্রেস। এদিকে, এবার সাধারণতন্ত্র দিবসের থিম, ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব।’ স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে এই থিম কেন্দ্রের। আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার গুরুত্ব দিয়েছে –নেতাজির উপর। কারণ, এবার সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী। কাজেই ওয়াকিবহাল মহলের প্রশ্ন, স্বাধীনতার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে বাংলা, নেতাজি। তার পরেও সাধারণতন্ত্র দিবসের ট্যাবলো থেকে কেন বাদ পড়ল বাংলা? এবার সেই প্রশ্ন তুললেন খোদ মুখ্যমন্ত্রীও।

অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় সূত্রে খবর, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ভোটমুখী উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ডের ট্যাবলোকে ছাড় দিয়েছে। অথচ উত্তরপ্রদেশের ট্যাবলোর থিম কাশী বিশ্বনাথ মন্দির আর উত্তরাখণ্ডের থিম কেদারনাথ। মজার বিষয় হল- এই দু’টি থিম ভারতীয় সংস্কৃতির ধারক-বাহক হলেও, দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের সঙ্গে কার্যত কোনও সম্পর্ক নেই তাদের। তাই স্বাভাবিকভাবে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত ঘিরে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গতবারও দিল্লিতে প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে জায়গা পেয়েছিল না বাংলার ট্যাবলো। সেবার রাজ্যের থিম ছিল ‘কন্যাশ্রী’, ‘সবুজসাথী’ এবং ‘জল ধরো, জল ভরো’। শেষ ২০১৯-এ দিল্লির প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান দেখা গিয়েছিল বাংলার ট্যাবলো।