IND vs NZ: দুরন্ত জয় দিয়ে অভিযান শুরু রোহিত-দ্রাবিড় জুটির! দলের জয়ে মুখে হাসি ক্যাপ্টেনের

IND vs NZ: দুরন্ত জয় দিয়ে অভিযান শুরু রোহিত-দ্রাবিড় জুটির! দলের জয়ে মুখে হাসি ক্যাপ্টেনের
IND vs NZ: দুরন্ত জয় দিয়ে অভিযান শুরু রোহিত-দ্রাবিড় জুটির! দলের জয়ে মুখে হাসি ক্যাপ্টেনের

ভারতীয় ক্রিকেটে শুরু হল রোহিত-দ্রাবিড় অধ্যায়। কিউয়িদের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে দুরন্ত জয় ছিনিয়ে অভিযান শুরু করলেন এই জুটি। গতকাল জয়পুরের প্রথম টি-২০ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৫ উইকেটে পরাস্ত করল রোহিত বাহিনী। সেই সঙ্গে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল টিম ইন্ডিয়া। কোচ দ্রাবিড় ও অধিনায়ক রোহিতের এই যুগলবন্দী দেখে উচ্ছ্বসিত সমর্থকরাও।

বুধবার টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টিম ইন্ডিয়ার নয়া টি-২০ ক্যাপ্টেন রোহিত। শুরুতেই ডেরিল মিচেলকে ‘গোল্ডেন ডাক’-এ ফিরিয়ে কিউয়িদের বড় ধাক্কা দেন ভুবনেশ্বর কুমার৷ এরপর ইনিংসের হাল ধরেন মার্টিন গাপ্টিল ও মার্ক চ্যাপম্যান। ৫০ বলে ৬২ রান করেন চ্যাপম্যান। গাপ্টিলের সংগ্রহ ৪২ বলে ৭০। এঁদের দাপটেই নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান তুলে ফেলে নিউজিল্যান্ড। এদিন ভারতের হয়ে সবচেয়ে সফল বোলার ভুবনেশ্বর কুমার এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দু’টি করে উইকেট শিকার করেন তাঁরা। এছাড়াও মহম্মদ সিরাজ এবং দীপক চাহারের ঝুলিতে রয়েছে একটি করে উইকেট।

IND vs NZ: দুরন্ত জয় দিয়ে অভিযান শুরু রোহিত-দ্রাবিড় জুটির! দলের জয়ে মুখে হাসি ক্যাপ্টেনের
IND vs NZ: দুরন্ত জয় দিয়ে অভিযান শুরু রোহিত-দ্রাবিড় জুটির! দলের জয়ে মুখে হাসি ক্যাপ্টেনের

কিউয়ি ইনিংস শেষে ব্যাট করে নেমে রোহিত-রাহুল জুটির ওপেনিং পার্টনারশিপ ভারতের জয়ের ভীত গড়ে দেয়। দু’জনের জুটিতে বিনা উইকেটে ৩১ বলে ৫০ রান ওঠে। এরপর আইট হয়ে যান কেএল রাহুল। হাফ সেঞ্চুরি থেকে মাত্র দু রান দূরে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন রোহিতও। এরপর সূর্যকুমার যাদবের দুরন্ত ইনিংসে জয়ের দোরগোড়ায় চলে আসে ভারত। যদিও শেষ দিকে পর পর উইকেট পড়তে থাকায় খানিক চাপেই পড়ে গিয়েছিল ভারত। রানও তেমন উঠছিল না। তবে শেষ পর্যন্ত চার মেরে দলকে জেতান পন্থ।

জাতীয় টি-২০ দলের পূর্ণ অধিনায়কের দায়িত্ব নেওয়ার পর এটাই দলের প্রথম জয়। তাই স্বাভাবিকভাবে বেশ খুশি রোহিত শর্মা। যদিও তিনি এও স্বীকার করে নিয়েছেন যে যতটা সহজে জয় আসার কথা ছিল তা আসেনি। তবে দলের পারফরম্যান্স দেখে হাসি মুখ তাঁর। অধিনায়কের কথায়, “যত সহজে জয় আসবে ভেবেছিলাম, তত সহযে এল না। আমাদের কী করতে হবে, সেটা আগে থেকে বোঝা দরকার। সবসময় ধুমধাড়াক্কা মেরে খেললেই ম্যাচ জেতানো যায় না। তবে একজন অধিনায়ক হিসেবে এবং দলগতভাবে আমি খুব খুশি যে শেষপর্যন্ত ম্যাচটা জিততে পারলাম। একটা ভালো ম্যাচ খেললাম। একটা সময় মনে হয়েছিল, নিউজিল্যান্ড ১৮০-র বেশি রান করতে পারবে। সেইদিক থেকে আমাদের বোলাররাও যথেষ্ট ভালো পারফর্ম করেছে।” পাশাপাশি তিনি এও জানান, “কয়েকজন ক্রিকেটারকে মিস করেছি। তেমনই কয়েকজনকে সুযোগ দেওয়ার কারণে ওরা নিজেদের প্রতিভা দেখানোর সুযোগও পেয়েছে।”