ক্রমশ আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা! দেশে একদিনে করোনায় মৃত্যু প্রায় সাড়ে তিন হাজার

ক্রমশ আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা! দেশে একদিনে করোনায় মৃত্যু প্রায় সাড়ে তিন হাজার
ক্রমশ আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা! দেশে একদিনে করোনায় মৃত্যু প্রায় সাড়ে তিন হাজার / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশে করোনার সংক্রমণ লাগামছাড়া। ক্রমশ দেশজুড়ে আরও ভয়ঙ্কর এবং আরও প্রাণঘাতী হয়ে উঠছে এই ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ভাইরাস। মাত্র মাস-খানেকের ব্যবধানে দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ থেকে বেড়ে প্রায় ৪ লক্ষ ছুঁইছুঁই।

এর মধ্যে দেশজুড়ে প্রয়োজনীয় ওষুধ, ভ্যাকসিন এবং অক্সিজেনের ঘাটতি পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ করে তুলেছে। দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বড় সংকটের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে। এ বিষয়ে কোনও সন্দেহই নেই যে, পরিস্থিতি গত বছরের থেকে আরও খারাপ। তাছাড়া গত কয়েকদিনে লাগামছাড়া সংক্রমণে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যাও। সারা দেশে বাড়তে থাকা অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা থেকেই স্পষ্ট হচ্ছে, কেন দেশব্যাপী অক্সিজেন এবং হাসপাতালে বেডের আকাল দেখা দিয়েছে।

এদিন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৮৬ হাজার ৪৫২ জন। এই আক্রান্তের সংখ্যার বেশিরভাগই মহারাষ্ট্রের। উল্লেখ্য, জুলাই এবং আগস্ট মাসে মহারাষ্ট্রে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সম্ভবনারও ইঙ্গিত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে দিল্লির অবস্থাও ভাল নয় মোটেই। সংক্রমণ আরও বাড়তে থাকায়, সেখানে লকডাউনের মেয়াদ আরও বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে সেখানে। দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৮৭ লক্ষ ৬২ হাজার ৯৭৬।

অন্যদিকে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় এই মারণ ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ৩,৪৯৮ জন। এ নিয়ে দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২ লক্ষ ০৮ হাজার ৩৩০ জনের। অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যাও ক্রমবর্ধমান। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩১ লক্ষ ৭০ হাজার ২২৮ জন।

এদিকে পরিসংখ্যান থেকে জানা যাচ্ছে যে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়েছেন ২ লক্ষ ৯৭ হাজার ৫৪০ জন। এ নিয়ে দেশে এখনও পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৫৩ লক্ষ ৮৪ হাজার ৪১৮ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। টিকা পেয়েছেন ১৫ কোটি ২২ লক্ষেরও বেশি মানুষ।

দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণ রুখতে টিকাকরণের উপর জোর দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। ১ মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রত্যেককে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তবে, টিকাকরণের পাশাপাশি রোগী চিহ্নিত করতে চলছে টেস্টিংও। যদিও বেশ কয়েকটি রাজ্যে পর্যাপ্ত টিকার জোগান না থাকায়, তারা জানিয়ে দিয়েছে ১ তারিখ থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রত্যেককে করোনা টিকা দেওয়া সম্ভব নয়। এইসব রাজ্যের মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ প্রভৃতি। এদিকে ICMR-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, গতকাল ১৯ লক্ষ ২০ হাজার ১০৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.