দোহাতে ভারতের সঙ্গে প্রথম কূটনৈতিক বৈঠক তলিবানের! কী উঠে এল আলোচনায়?

দোহাতে ভারতের সঙ্গে প্রথম কূটনৈতিক বৈঠক তলিবানের! কী উঠে এল আলোচনায়?
দোহাতে ভারতের সঙ্গে প্রথম কূটনৈতিক বৈঠক তলিবানের! কী উঠে এল আলোচনায়? প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ অবশেষে দীর্ঘ ২০ বছরের যুদ্ধের পরিসমাপ্তি। তালিবানরা আফগানিস্তান দখলের পর আজই দেশে ফিরল মার্কিন সেনা। আফগানিস্তান থেকে সম্পূর্ণ সেনা প্রত্যাহার করেছে আমেরিকা ইতিমধ্যেই। আগের ঘোষণা অনুযায়ী, ৩১ আগস্টের সময়সীমা শেষ হওয়ার আগেই সেনা প্রত্যাহার করল আমেরিকা।

কোনও পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই ওয়াশিংটন এবং ন্যাটোর দেশগুলিকে আফগানিস্তান থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। বর্তমান অস্থির এবং ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে বহু আফগানবাসীকে তালিবানি ঘেরাটোপের মধ্যেই রেখে গেল আমেরিকা। মার্কিন সেনা দেশ ছাড়ায় রীতিমতো উৎসবের পরিবেশ কাবুলে।

এদিকে মার্কিন সেনা আফগানিস্তানের মাটি ত্যাগ করার সঙ্গে সঙ্গে সে দেশে পুনরায় ক্ষমতা পূর্ণ প্রতিষ্ঠা করল তালিবান। আর তারপরই প্রথমবার তালিবানের অনুরোধে দোহাতে ভারতীয় দূতাবাসে দুপক্ষের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হল। দোহাতে আফগানিস্তান সরকারের সম্ভাব্য বিদেশমন্ত্রী শের মহম্মদ আব্বাস স্তানিকজাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন কাতারে ভারতের রাষ্ট্রদূত দীপক মিত্তল৷

এই বৈঠকে প্রধানত নিরাপত্তা, সুরক্ষা ও আফগানিস্তানে আটকে থাকা ভারতীয় নাগরিকদের দ্রুত দেশে ফেরানোর ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। একটি অফিসিয়াল বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, ‘আফগানিস্তানে আটকে থাকা ভারতীয় নাগরিকদের নিরাপত্তা এবং তাঁদের দ্রুত ভারতে ফেরা নিয়েই আলোচনা হয়েছে৷ পাশাপাশি আফগান নাগরিক বিশেষত সংখ্যালঘু যাঁরা ভারতে আসতে চান, সেই প্রসঙ্গও আলোচনায় উঠেছে।’

পাশাপাশি এই বৈঠকে ভারতের পক্ষ থেকে পরিষ্কার ভাষায় জানানো হয়েছে, আফগানিস্তানের মাটিতে যেন ভারত-বিরোধী সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ গড়ে না ওঠে। শুধু তাই নয়, তালিবান আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পরই যেভাবে জঙ্গিরা আফগান-মাটিকে নিজেদের পছন্দের জায়গা হিসেবে ব্যবহার করতে শুরু করেছে, তা নিয়েও নিজেদের ঘোরতর আপত্তির কথা জানিয়েছে ভারত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই বৈঠক অনেক আগেই অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। তবে, চিন্তা-ভাবনার জন্য বেশ কিছু দিন সময় নিয়ে, তবেই তালিবানের সঙ্গে এই কূটনৈতিক আলোচনায় বসল ভারত।