শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

আজ কিডনি প্রতিস্থাপন হল লালুপ্রসাদের, বাবা ও দিদি কেমন আছেন? টুইটে জানালেন তেজস্বী

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২২, ০৭:৫৬ পিএম | আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২২, ০৮:০৫ পিএম

আজ কিডনি প্রতিস্থাপন হল লালুপ্রসাদের, বাবা ও দিদি কেমন আছেন? টুইটে জানালেন তেজস্বী
আজ কিডনি প্রতিস্থাপন হল লালুপ্রসাদের, বাবা ও দিদি কেমন আছেন? টুইটে জানালেন তেজস্বী

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ অবশেষে নির্ধারিত দিনেই কিডনি প্রতিস্থাপন হল আরজেডি সুপ্রিমো তথা বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের। তাঁকে কিডনি দিলেন তার মেয়ে রোহিণী আচার্য। লালুপ্রসাদের ছেলে তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব জানিয়েছেন, লালুপ্রসাদ যাদবের সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে, তাঁর বাবা এবং দিদি দুজনেই ভালো আছেন।

এদিন তেজস্বী যাদব একটি ভিডিও টুইট করেছেন, যেখানে লালুপ্রসাদকে স্ট্রেচারে করে অপারেশন থিয়েটার থেকে আইসিইউ-তে নিয়ে যেতে দেখা গিয়েছে। আবার এদিন অস্ত্রোপচার হওয়ার আগে রোহিনী আচার্য নিজে তাঁর এবং বাবা লালুপ্রসাদের একটি ছবি টুইট করেছিলেন। দুজনেই ছিলেন হাসপাতালের পোশাকে। রোহিনী লেখেন, “রেডি টু রক।”

উল্লেখ্য, লালুপ্রসাদের মেজ মেয়ে রোহিণী আচার্য বাবাকে কিডনি দেবেন, চলতি মাসেই এই কথা প্রকাশ্যে এসেছিল। এরপরই রোহিণীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয় গোটা দেশ। উল্লেখ্য, রোহিণী সিঙ্গাপুরেই থাকেন। সেখানেই অস্ত্রোপচার হয়েছে লালুপ্রসাদের। এই প্রসঙ্গে আগেই জানা গিয়েছিল, সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কিডনি প্রতিস্থাপন হবে। এরপর লালুপ্রসাদ যাদবের ছেলে তথা বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব সম্প্রতি জানিয়েছিলেন, বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর দেহে তাঁর মেয়ের কিডনি প্রতিস্থাপন হবে আগামী ৫ ডিসেম্বর।

প্রসঙ্গত দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব। ক্রমশই খারাপ হচ্ছিল তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি। এর মধ্যেই জানা যায় যে, তাঁকে সুস্থ করে তুলতে তাঁরই মেজ মেয়ে রোহিণী নিজের কিডনি বাবাকে দেওয়ার ব্যাপারে মনোস্থির করেছেন। গত মাসেই সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরেছেন লালুপ্রসাদ যাদব। তবে, শুধু কিডনির সমস্যাই, আরও নানা অসুখে ভুগছিলেন বর্ষীয়ান এই আরজেডি-র প্রতিষ্ঠাতা। এই অবস্থায় সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকদের পরামর্শ ছিল, দ্রুত কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হবে। এরপরই বাবাকে কিডনি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মেয়ে রোহিণী আচার্য। তবে, জানা যায়, মেয়ের এই সিদ্ধান্তে প্রথমে সায় ছিল না লালুপ্রসাদ যাদবের। যদিও শেষপর্যন্ত তিনি রাজি হন।

এদিন অস্ত্রোপচার চলাকালীন এই বিষয়ে টুইট করে আপডেট দেন লালুপ্রসাদের বড় মেয়ে তথা রাজ্যসভার সাংসদ ডা. মিসা ভারতী। টুইট করে জানান, তাঁর বোনের ‘দাতার অস্ত্রোপচার’ সফল হয়েছে। তিনি আরও জানান, এই অস্ত্রোপচারের পর তাঁর বোন একেবারে সুস্থ রয়েছে। সেই সময় লালুপ্রসাদের অস্ত্রোপচার চলছিল বলেও তিনি জানিয়েছিলেন।