শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

আচমকাই অফিসে ED-র হানা! কোটি টাকার সোনা ও নগদ নিয়ে চলে যেতেই সামনে এল অন্য গল্প

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২৩, ১২:২২ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০২৩, ১২:২২ পিএম

আচমকাই অফিসে ED-র হানা! কোটি টাকার সোনা ও নগদ নিয়ে চলে যেতেই সামনে এল অন্য গল্প
আচমকাই অফিসে ED-র হানা! কোটি টাকার সোনা ও নগদ নিয়ে চলে যেতেই সামনে এল অন্য গল্প/ প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আচমকাই অফিসে ইডির আধিকারিকদের হানা। কয়েকজন আধিকারিক ঢুকেই শুরু করলেন তল্লাশি। আলমারি ঘাঁটাঘাঁটি থেকে শুরু করে ফাইল উল্টেপাল্টে দেখা সবই চলছিল। কিছুক্ষণ সেসব করার পরই তাঁরা হদিশ পেলেন লকারের। এই লকার খুলতেই বেরিয়ে এল লক্ষ লক্ষ টাকার বান্ডিল। তার সঙ্গে মজুত ছিল কয়েক কেজি সোনাও। কোনও বাক্যব্যয় না করেই, যাবতীয় জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করে বেরিয়ে গেলেন তাঁরা।

এই গোটা ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই হতবাক হয়ে যান ব্যবসায়ী। পরে তিনি খোঁজখবর নিতেই জানতে পারেন যে, আদৌও কোনও ইডি অভিযান হয়নি। তাঁকে রীতিমতো বোকা বানিয়ে কোটি টাকা মূল্যের সোনার গয়না এবং নগদ অর্থ লুঠ করে পালিয়ে যায়, ইডি সেজে আসা ব্যক্তিরা। এই লুঠের ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ে।  

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার মুম্বইয়ের জাভেরি বাজার এলাকার এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ফোন আসে। ফোনে ওই ব্যবসায়ী জানান, তাঁর অফিসে ইডি হানা চালিয়ে প্রচুর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে গিয়েছে। তবে ওই আধিকারিকরা আদৌই ইডির অফিসার কিনা, তা নিয়ে তাঁর সন্দেহ রয়েছে। এরপরই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। প্রাথমিক তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায় যে, কয়েকজন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি ভুয়ো পরিচয়ে ব্যবসায়ীর অফিসে ঢুকে লুঠপাঠ করেন। অভিযুক্তরা নিজেদের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিক বলে দাবি করেছিলেন ব্যবসায়ীর কাছে।

ওই ব্যবসায়ীর অফিস থেকে তাঁরা নগদ ২৫ লক্ষ টাকা লুঠ করেন। অফিস থেকে ৩ কেজি সোনাও বাজেয়াপ্ত করেন তাঁরা, যার বাজার মূল্য ১.৭০ কোটি টাকা। টাকা ও সোনা নিয়ে ওই অভিযুক্তরা চম্পট দেন। তল্লাশি অভিযান ও টাকা-গয়না বাজেয়াপ্ত করার জন্য যথাযথ নথিও দেখাননি তাঁরা ব্যবসায়ীকে, এমনটাই জানা গিয়েছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে এই ঘটনা প্রসঙ্গে জানানো হয়েছে, ওই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৯৪, ৫০৬(২), ও ১২০ বি ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ব্যবসায়ীর অফিসের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করা হয়। এরপরই ইতিমধ্যেই তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, এই ঘটনায় এবং বাকি আরও ৩ জনের খোঁজ চলছে।